রূপচর্চায় স্টিম
রূপচর্চায় স্টিম

রূপচর্চায় স্টিম

ফাহমিদা জাবীন

অনেকের ত্বকের উপরিভাগে ডেড সেল থাকে। যাকে হর্নড লেয়ার বলে। স্টিমের আর্দ্রতা এই লেয়ারকে নরম করে ফেলে। ফলে পরিষ্কার করতে সুবিধা হয়। সাথে সাথে জমে থাকা ময়লা ও ব্যাকটেরিয়াও দূর হয়

ত্বকের স্বাস্থ্যপরিচর্যায় যেসব ট্রিটমেন্ট বেশি জনপ্রিয় তার মধ্যে অন্যতম স্টিম নেয়া। ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে স্টিম বিশেষভাবে কার্যকর।

স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্যচর্চায় বাষ্প বা স্টিমের ব্যবহার নতুন কোনো বিষয় নয়। বহুকাল আগে থেকেই এর ব্যবহার ছিল বলে জানা যায়। আধুনিক যুগে স্টিমের ব্যবহার বেড়েছে। শরীর ও রূপচর্চায় এটিকে এখন ট্রিটমেন্ট হিসেবে ধরা হচ্ছে।

পানিকে ১১০ ডিগ্রি ফারেনহাইট বা ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ফুটিয়ে যে স্টিম তৈরি হয় সাধারণত সেটাই ট্রিটমেন্টে ব্যবহার করা হয়। এই স্টিম ত্বকের উপরিভাগে ঘাম সৃষ্টি করে আর বাড়িয়ে দেয় আর্দ্রতা, যা ত্বক পরিষ্কার করতে জাদুর মতো কাজ করে।

আজকাল স্টিম ট্রিটমেন্টের প্রতি মানুষের আগ্রহ বেড়েছে। হটটাব ও স্টিম রুমে কিছু সময় কাটিয়ে দূর করা যায় অবসাদ। বিউটি স্যালুনগুলোতে ফেসিয়াল স্টিমিংয়ের ব্যবহার সবচেয়ে বেশি। তবে মনে রাখতে হবে, সব ধরনের ত্বকে স্টিম প্রয়োগ উচিত নয়। ত্বকে স্টিম নেয়ার আগে ভালো কোনো বিশেষজ্ঞ বা বিউটিশিয়ানের পরামর্শ নেয়া যেতে পারে। ফুটন্ত পানির ওপর নিরাপদ দূরত্ব থেকে ফেসিয়াল স্টিম নেয়া হয়। এর উপকারিতা অনেক। স্টিম ব্রণ কমাতে সাহায্য করে। তা ছাড়া যাদের ত্বকে ব্ল্যাক হেডস ও হোয়াইট হেডসের সমস্যা আছে, তারা স্টিম নিতে পারেন।

স্টিম নিলে রক্তসঞ্চালন গতিশীল হয় এবং সেটা ত্বকের উপরিভাগে প্রাণের সঞ্চার করে। অনেকের ত্বকের উপরিভাগে ডেড সেল থাকে। যাকে হর্নড লেয়ার বলে। স্টিমের আর্দ্রতা এই লেয়ারকে নরম করে ফেলে। ফলে পরিষ্কার করতে সুবিধা হয়। সাথে সাথে জমে থাকা ময়লা ও ব্যাকটেরিয়াও দূর হয়। স্টিম নেয়ার পর ত্বকের লোমকূপের মুখ খুলে যায় আর বেড়ে যায় এর শোষণক্ষমতা। সে কারণে ফেসিয়াল স্টিমিংয়ের পরপরই ত্বকে প্রয়োজনীয় প্যাক লাগানো জরুরি। তা না হলে লোমকূপ বড় হতে পারে।

ত্বকের কিছু অসুস্থতা আছে, যা বেশি রক্ত সঞ্চালন বা ঘাম হলে বাড়ে। যেমন-ফাঙ্গাল ইনফেকশন। এ ক্ষেত্রে স্টিমিং উল্টো ফল বয়ে আনতে পারে।

সাধারণত ১২ থেকে ১৮ ইঞ্চি দূর থেকে ফেসিয়াল স্টিম নেয়া উচিত। খুব কাছ থেকে স্টিম দিতে গেলে অতিরিক্ত রক্তসঞ্চালনের কারণে ত্বকের অভ্যন্তরে ক্যাপিলরিস নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ছয় থেকে সাত মিনিট স্টিম নেয়াই ত্বকের পক্ষে যথেষ্ট। তবে অবশ্যই প্রয়োজনীয়তা বুঝে স্টিমের ব্যবহার করা প্রয়োজন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.