ঢাকা, মঙ্গলবার,২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ধর্ম-দর্শন

হজের স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে গরিব আবদুল্লাহর : এক মজার ঘটনা

ডেইলি সাবাহ

২১ আগস্ট ২০১৭,সোমবার, ০৬:৩০


প্রিন্ট
বাড়ির উঠানে সেই ড্রোন হাতে আল হাসান আবদুল্লাহ। দ্বিতীয় ছবিতে হজের উদ্দেশে যাত্রা করছেন তিনি 

বাড়ির উঠানে সেই ড্রোন হাতে আল হাসান আবদুল্লাহ। দ্বিতীয় ছবিতে হজের উদ্দেশে যাত্রা করছেন তিনি 

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ ঘানার একটি প্রত্যন্ত গ্রামে তুরস্কের এক টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানের জন্য দৃশ্যধারণ চলছিল। অনুষ্ঠান নির্মাতা একটি ড্রোনের সাথে ক্যামেরা জুড়ে দিয়ে ওপর থেকে ভিডিও ধারণ করছিলেন। একপর্যায়ে ড্রোনটি গিয়ে নামে স্থানীয় একটি বাড়ির উঠানে।


উঠানে আজব বস্তুটিকে নামতে দেখে কৌতূহলবশত এগিয়ে আসেন বাড়ির কর্তা বৃদ্ধ আল হাসান আবদুল্লাহ। শুটিং ইউনিটের এক কর্মীর কাছে তিনি জানতে চান জিনিসটি কী? তারা ওই বৃদ্ধকে বলেন এটির নাম ড্রোন, এটি আকাশে উড়ে উড়ে ভিডিও ধারণ করছে। এ পর্যায়ে দরিদ্র আবদুল্লাহ তাকে বলেন, এটি কি আরো বড় করে বানানো যায়, যাতে চড়ে আমি মক্কা যেতে পারব হজ করতে? আমার তো বিমানে চড়ে যাওয়ার মতো টাকা নেই।


দরিদ্র বৃদ্ধের কথাগুলো দাগ কাটে ওই টিভি ক্রুর মনে। বৃদ্ধের ছবিসহ তার হজের আকুতির কথা লিখে একটি পোস্ট দেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে। মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় খবরটি। যা শেষ পর্যন্ত নজরে আসে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মওলুদ কাভুসওগলুর। বৃদ্ধের মনোবাসনা পূর্ণ করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশে খুঁজে বের করা হয় ওই বৃদ্ধকে। তুরস্কের সরকারি খরচে তাকে হজে পাঠানোর সমস্ত আয়োজন করা হয়। গত শুক্রবার ঘানার আক্রা থেকে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে আসেন আল হাসান আবদুল্লাহ। সেখান থেকে তিনি যাবেন মক্কা।


হজের স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে এই খবরে ভীষণ আপ্লুত আবদুল্লাহ। তুরস্কের আনাদোলু বার্তাসংস্থাকে তিনি বলেন, ‘আমি আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞ। আর আমার এই স্বপ্ন পূরণে যারা সাহায্য করেছেন তাদের জন্য দোয়া করি। তুরস্কের সাহায্য আমার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং আমি বিশ্বাস করি এ ঘটনা মুসলিমদের মধ্যে বন্ধুত্ব ও ভ্রাতৃত্ব বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে’।


তুর্কি সরকারের নির্দেশে আবদুল্লাহর হজের বিষয়টি দেখভাল করছে দেশটির একটি দাতব্য সংস্থা, যারা ঘানায় বিভিন্ন কর্মকা পরিচালনা করে। সংস্থাটির ডেপুটি চেয়ারম্যান জিহাদ গোকদেমির জানিয়েছেন, ইস্তাম্বুলভিত্তিক টিভি চ্যানেল ও সংবাদসংস্থা টিআরটির এক কর্মীর টুইটের মাধ্যমে বিষয়টি সবার নজর কাড়ে। সবাই আবদুল্লাহর হজ স্বপ্ন পূরণে আন্তরিক হয়ে ওঠেন। অনেক ব্যবসায়ী ও কোম্পানি এ বিষয়ে সহায়তাও করতে চেয়েছে। ঘানার তুর্কি দূতাবাসের এক পুলিশ অফিসার আবদুল্লাহকে খুঁজে বের করেছেন’।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫