ঢাকা, রবিবার,১৯ নভেম্বর ২০১৭

আগডুম বাগডুম

আগডুম বাগডুম কবিতা

১৯ আগস্ট ২০১৭,শনিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

ঈদের শিখন
হাসান হাফিজ

ঈদুল আজহা ত্যাগের ঈদ
দ্যায় সে মহান শিক্ষা ভাই,
মানবজাতির ঐক্য মিলন
বিকল্প এর কিচ্ছু নাই।
ঈদুল আজহা সাম্যবাদের
ত্যাগের সবক নাও সবে
বৈষম্য হঠিয়ে দিয়ে
শান্তি আসুক এই ভবে।
সম্মিলনের মূল মন্ত্রে
সবাই এসো দীক্ষা নিই
সম্প্রীতিসুখ প্রীতির পরশ
সবার মাঝে বিলিয়ে দিই।

আল্লাহর পথে
আমিনুল ইসলাম

আল্লাহর পথে পশু
দেই কোরবানি
সাফ হয় দেহ আর
অন্তরখানি।
কোরবানি মানে হলো
ত্যাগ মহিমা
দূর হয় হৃদয়ের
সব গরিমা।
কোরবানি মানে সেতো
ত্যাগ আর ঈদ
গেঁথে যায় অন্তরে
ঈমানের ভিত।
কোরবানি কোরবানি
পশু কোরবানি
নিয়মের কথাগুলো
সব যেন মানি।

রেলের বাড়ি সুখানপুর
মাহফুজুর রহমান আখন্দ

টিকিট কাটো টিকিট কাটো
রেল চলেছে রেল
কু-ঝিক ঝিক কু-ঝিক ঝিক
বাদ্য তালের খেল

রেলের বাড়ি সুখানপুর
যাচ্ছে গাড়ি অনেক দূর

ইস্টিশনে মিষ্টি খাও
মজার তালে বাড়ি যাও

আম্মা আছেন তাকিয়ে
খোকন সোনা আয়রে বাড়ি
রেলের বগি ঝাঁকিয়ে।

শরৎ এলো
ইকবাল কবীর মোহন

শরৎ ফুলের গন্ধে ভরা
নরোম নরোম দিন
শাদা শাদা মেঘের কোলে
শরৎ খুঁজে নিন।
শরৎ আনে বৃষ্টিভেজা
মিষ্টি মধুর সুখ
কাশের বনে চপল হাওয়া
ভোলায় মনের দুখ।
শরৎ এলে কেমন যেন
নতুন নতুন সাজ
ফোঁটা ফোঁটা শিশির বলে
শরৎ এলো আজ।

ত্যাগের ঈদ
হামিদ সরকার

বছর ঘুরে সবার ঘরে
আসে খুশির ঈদ,
কোরবানি দে মনের পশু
ঘুচবে সকল জিদ।

খোদার রাহে কোরবানি করো
ওহে মুসলমান,
রক্ত মাংস চান না তিনি
দেখেন মন-প্রাণ।

কোরবানিতে খোদার খুশি
কবুলে নাজাত,
গোশত বিলাও দুখীজনে
পাবে ঈদের স্বাদ।

ঈদের খুশি, ঈদের হাসি
মিলাও বুকে বুক,
রাখলে মনে ঈদের শিক্ষা
সবাই পাবে সুখ।

বর্ষার বাংলা
পৃথ্বীশ চক্রবর্ত্তী

বর্ষার বাংলায়
দিনভর রাতভর
ঝর-ঝর-ঝর-ঝর
বৃষ্টি ঝরছে
নদ-নাল ভরছে।

বর্ষার বাংলায়
খাল-বিল ঝিলমিল
ঝিলমিল করছে
কেউ মাছ ধরছে
কেউ নাও চড়ছে
কেউ বই পড়ছে।

বর্ষার বাংলায়
মাঠ-ঘাট থইথই
নাইতে-যাইতে
খাইতে হইচই।

বর্ষার বাংলায়
মৃদু-মন্দ
চাঁপা-কদম
বিলায় গন্ধ।

বর্ষার বাংলায়
যত দূর চোখ যায়
শাপলা হাসছে
কলমি ভাসছে
ময়ূর নাচছে।

বর্ষার বাংলায়
জল আয় দরদর
বর্ষার বাংলার
রূপ তাই সুন্দর।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫