ঢাকা, রবিবার,১৭ ডিসেম্বর ২০১৭

প্রশাসন

দুই পত্রিকার ওপর বেজায় চটেছেন অর্থমন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা

১৭ আগস্ট ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ০১:৪৫ | আপডেট: ১৭ আগস্ট ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ০১:৫৫


প্রিন্ট
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত

দুইটি পত্রিকার ওপর বেজায় চটেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এই দুইটি পত্রিকা হচ্ছে দৈনিক আমাদের অর্থনীতি ও ইংরেজি দৈনিক এশিয়ান এজ। অর্থমন্ত্রী বলেছেন, তার ও তার পরিবার সম্পর্কে এই দুইটি পত্রিকা ‘মিথ্যা’ ও ‘বানোয়াট’ সংবাদ প্রকাশ করেছে। তাদের পরিবেশিত সংবাদ ‘বোগাস’। তাই পত্রিকা দুইটির বিরুদ্ধে তিনি ১০০ কোটি টাকা করে মোট ২০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা করবেন। তিনি ক্ষুব্ধকণ্ঠে বলেছেন, এ কাগজ দুইটি সব ধরনের লিমিট ক্রস করেছে। তারা আমার নামে মিথ্যা সংবাদ লিখেছে।
গতকাল সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, কোনো বিশেষ উৎসব উপলক্ষে আমি একসাথে ২০-২৫টা পত্রিকা দেখি। এ কারণে এ দুই পত্রিকা (দৈনিক আমাদের অর্থনীতি ও এশিয়ান এজ) মাঝে মাঝে দেখি। আমার মূল বক্তব্য হলো, এগুলো কিছু ‘ওয়ার্থলেস’ কাগজ আছে। নামকাওয়াস্তে তারা বছরে একটা, দুইটা, তিনটা, চারটা প্রকাশ করে। প্রকাশ করে লাইসেন্স নিয়ে রাখে। কি লাভ হয় তাদের আই ডোন্ট নো। কিন্তু এ রকম অসংখ্যা কাগজ আছে বাংলাদেশে। 

এ সময় অর্থমন্ত্রী পত্রিকা দুইটি দেখিয়ে বলেন, এ কাগজ দুইটি সব ধরনের লিমিট ক্রস করেছে। তারা আমার নামে মিথ্যা সংবাদ লিখেছে। আমি তাদের নামে মানহানির মামলা করব।
বর্ষীয়ান অর্থমন্ত্রী রাগে কাঁপতে কাঁপতে সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, ১০ কোটি, ১০০ কোটি বা ১১০ কোটি- যা ইচ্ছা তাই দিয়ে আমি মানহানির মামলা করব। 

মন্ত্রী বলেন, পত্রিকা দুইটি লিখেছে, বাংলাদেশ-চায়না রিলেশনশিপ বিল্ডআপ প্রোগ্রামে যোগদানের উদ্দেশ্যে লন্ডনের আয়োজক সংস্থা ইউরোমানির কাছে আমি ছেলে ও মেয়ের জন্য প্লেনের টিকিট চেয়েছি। এটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, বানোয়াট, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও মানহানিকর। এতে আমার সম্মানহানি হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, গত ৯ বছরে কারো কাছ থেকে প্লেনের টিকিট নিয়ে আমি কোথাও যাইনি। আর তা নেয়ার কোনো প্রশ্নই ওঠে না। কারণ আমি যখন সরকারি কোনো প্রোগ্রামে বিদেশ গেছি তখন সব খরচ সরকার বহন করেছে। আর সরকারি বিধান অনুযায়ী সফর সঙ্গী হিসেবে আমি একজনকে নিতেই পারি। 

অর্থমন্ত্রী বলেন, সংবাদটি করার আগে বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য আমাদের বক্তব্য নেয়া উচিত ছিল। তারা ইআরডির রেফারেন্স দিয়েছে। কিন্তু বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা। এ সময় অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের সামনে ইআরডি সচিবের সঙ্গে কথা বলেন। ইআরডি সচিব নিশ্চিত করেন বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট পত্রিকা থেকে কেউ যোগাযোগ করেনি। 

তিনি বলেন, দুইটি পত্রিকাই বোগাস নিউজ করেছে। তাদের বিরুদ্ধে আমি আজই (গতকাল) ১০০ কোটি টাকা করে পৃথক দুইটি মানহানির মামলা করার নোটিশ দিচ্ছি।

বাংলাদেশ-চায়না রিলেশনশিপ অনুষ্ঠানটি হওয়ার কথা ছিল আগামী ২১ আগস্ট, চীনের বেইজিংয়ে। তবে ওই অনুষ্ঠান স্থগিত হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫