প্রবল বৃষ্টির কারণে নেমে আসা কাদায় ডুবে আছে সিয়েরা লিওনের রিজেন্ট শহরের একটি এলাকা :এএফপি
প্রবল বৃষ্টির কারণে নেমে আসা কাদায় ডুবে আছে সিয়েরা লিওনের রিজেন্ট শহরের একটি এলাকা :এএফপি

সিয়েরা লিওনে ভূমিধসে নিহত দুই শতাধিক

টেলিগ্রাফ

সিয়েরা লিওনে প্রবল বন্যা ও ভূমিধসে দুই শতাধিক বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। রাতের প্রবল বৃষ্টির পর রাজধানী ফ্রিটাউনের উপকণ্ঠে অসংখ্য ঘরবাড়ি কাদার নিচে তলিয়ে গেছে। গতকাল ভোরে পার্বত্য শহর রিজেন্টে এই ভয়াবহ ভূমিধসের সৃষ্টি হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, সেখানকার সড়কগুলো ‘মন্থরগতির নদীতে’ পরিণত হয়েছে।

একজন কর্মকর্তা জানান, শহরটির মর্গে দুই শতাধিক লাশ নেয়া হয়েছে। কনৌট হাসপাতালের করোনারি টেকনিশিয়ান সিন্নাহ কামারা স্থানীয় মিডিয়াকে বলেন, তাদের হাসপাতাল লাশে ভরে গেছে। সিয়েরা লিওনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ভিক্টর ফোহ নিশ্চিত করেছেন, ভূমিধসে হয়ত শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় মিডিয়ায় প্রচারিত ছবিগুলোতে দেখা যায়, লোকেরা কোমর সমান পানি ভেঙে রাস্তা পার হওয়ার চেষ্টা করছেন। অন্যান্য ছবিতে রিজেন্ট এলাকার একটি পাহাড়ের অংশ ধসে পড়ার দৃশ্য দেখা যায়। 

 সিয়েরা লিওনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফোহ বলেছেন, নিহত প্রায় একশ’ ব্যক্তি আবর্জনার নিচে চাপা পড়েছে। তিনি বলেন, অবৈধভাবে নির্মিত অনেক বাড়িঘর ভূমিধসের শিকার হয়েছে। ফোহ রয়টার্সকে বলেন, ধ্বংসস্তূপের নিচে শত শত লোক চাপা পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

তিনি বলেন, এটি ভয়াবহ দুর্যোগ যা দেখে আমার হৃদয় ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে। আমরা এলাকাটি ঘেরাও করে লোকদের উদ্ধারের চেষ্টা করছি। রিজেন্ট শহরে দু’টি এলাকা তলিয়ে যাওয়ার পর আটকে পড়া লোকজনকে উদ্ধার করতে উদ্ধারকর্মীরা সেখানে পৌঁছার চেষ্টা করছেন।

ফ্রিটাউনে আলজাজিরার সাথে কথা বলার সময় হেলি ইন্টারন্যাশনাল রিলিফ ফাউন্ডেশনের ইসমাইল আলফ্রেড চার্লস সেখানকার পরিস্থিতিকে ‘বিপর্যয়কর’ বলে বর্ণনা করে বলেন, সেখানে অনেক বাড়িঘর কাদার স্রোতের তোড়ে ভেসে গেছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.