‘বুড়িগঙ্গাকে দখল ও দূষণমুক্ত করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ করতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক

বুড়িগঙ্গাকে দখল ও দূষণমুক্ত করতে প্রধানমন্ত্রীর জরুরি ও কঠোর হস্তক্ষেপ নিতে হবে। প্রয়োজনে বিশেষ নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে বুড়িগঙ্গা রক্ষায় একটি ‘জরুরি আইন’ জারি করতে হবে। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে শ্যামপুর ডাইং কারখানা বন্ধ বা তাতে বর্জ্য শোধন প্ল্যান্ট বাধ্যতামূলক করতে হবে।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) ও বুড়িগঙ্গা রিভারকিপারের যৌথ উদ্যোগে আজ শুক্রবার শাহবাগে জাতীয় যাদুঘরের সামনে ‘শ্যামপুরের ডায়িং দূষণের হাত থেকে বুড়িগঙ্গাকে বাঁচানোর দাবিতে’ এক মানববন্ধনে পরিবেশবাদীরা একথা বলেন।

বাপার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোঃ আব্দুল মতিনের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন বুড়িগঙ্গা রিভারকিপার ও বাপার যুগ্মসম্পাদক শরীফ জামিল, বাপার যুগ্মসম্পাদক হুমায়ন কবির সুমন, ঢাকা ইয়ুথ ক্লাব ইন্টারন্যাশনালের সাধারণ সম্পাদক সোহাগ মহাজন, নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইবনুল সাঈদ রানা, গ্রিন ভয়েসের আব্দুস সাত্তার, নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ ফোরামের সহসম্পাদক মোঃ সেলিম, সুবন্ধন সামাজিক সংগঠনের সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, পুরান ঢাকা মঞ্চের যুগ্ম সদস্য সচিব মোস্তাফিজুর রহমান মুস্তাক, পুরান ঢাকা পরিবেশ উন্নয়ন ফোরামের সমন্বয়ক মোঃ ইমনার হোসেন, স্বপ্নের সিড়ি সমাজকল্যান সংস্থার সাধারণ সম্পাদক উম্মে সালমা প্রমুখ।

এছাড়া মানববন্ধনে বুড়িগঙ্গা পাড়ের ২০টিরও বেশি যুব ও সামাজিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.