ঢাকা, মঙ্গলবার,১২ ডিসেম্বর ২০১৭

অন্যান্য

পানিতে পা রাখতেই রক্তাক্ত!

বিবিসি

০৮ আগস্ট ২০১৭,মঙ্গলবার, ১১:২০


প্রিন্ট
পোকার আক্রমণে রক্তাক্ত স্যামের পা

পোকার আক্রমণে রক্তাক্ত স্যামের পা

অস্ট্রেলিয়ায় এক কিশোর সাগরে নামার পর এক অজানা মাংসভুক পোকার আক্রমণে তার পায়ে গুরুতর জখম হওয়ার পর এটা কি পোকা তা সনাক্ত করার আহ্বান জানিয়েছে তার পরিবার।

স্যাম কানিজে নামের ১৬ বছরের ওই কিশোর গত শনিবার মেলবোর্ন শহরের ব্রাইটন সৈকতে সাগরের পানিতে নামে। সে আধঘণ্টার মতো সময় কোমর পানিতে দাঁড়িয়ে ছিল।

স্যাম বলছিল, পানিতে থাকার সময় সে কিছুই টের পায়নি। কিন্তু পানি থেকে ওঠার পর সে দেখতে পায় যে তার দুই পা-ই ক্ষতবিক্ষত, এবং সেখান থেকে দরদর করে রক্ত পড়ছে।

তার বাবা জ্যারড কানিজে বলছিলেন, তার ছেলের পায়ের অবস্থা দেখে মনে হচ্ছিল যেন সে কোন যুদ্ধক্ষেত্রে গ্রেনেড বিস্ফোরণে আহত হয়েছে।

তার পরিবার বলছে, এটা কোনো এক ধরণের মাংসখেকো সামুদ্রিক পোকার কামড় এবং একে সনাক্ত করার জন্য তারা বিশেষজ্ঞদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

স্যামের পিতা বলেন, আমরা স্যামকে বাথরুমে শাওয়ারের নিচে নিয়ে যাই, কিন্তু তার রক্তপাত কিছুতেই বন্ধ হচ্ছিল না, রক্ত জমাট বাঁধছিল না।

কানিজে বলেন, আমরা তাকে দুটো হাসপাতালে নিয়ে গেলাম, কিন্তু কেউই বলতে পারছিল না যে স্যামের পায়ে আলপিন ফোটার মতো এই ক্ষতগুলো কি করে হলো।

কানিজে তখন নিজেই ঠিক করলেন যে ব্যাপারটা কি বের করতে হবে।

তিনি সেই বীচে ফিরে গেলেন, এবং দেখলেন সেখানে পানিতে হাজার হাজার ছোট ছোট পোকা দেখা যাচ্ছে। তিনি জাল দিয়ে সেই পোকা ধরলেন।

পোকাগুলো এখন বিশেষজ্ঞদের কাছে পাঠানো হয়েছে। সামুদ্রিক জীববিজ্ঞানীরা বলছেন, এগুলো কোন এক ধরণের সামুদ্রিক পোকা হতে পারে - যা সাগরের বিভিন্ন প্রাণীর মৃতদেহ খেয়ে বেঁচে থাকে।

বিজ্ঞানী ড. জেনেফর ওয়াকার-স্মিথ পোকাগুলো দেখে বলেছেন, সম্ভবত এগুলো লাইসিয়ানাসিড এ্যামফিপড নামের এক ধরণের সামুদ্রিক কীট।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫