বেশি মিষ্টি খেলে অবসাদগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে
বেশি মিষ্টি খেলে অবসাদগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে

মিষ্টি বেশি খেলে মেজাজ খিটখিটে হয়

নয়া দিগন্ত অনলাইন

আপনার কি মিষ্টি খুব পছন্দ? সামনে দেখলেই লোভ সামলাতে পারেন না, একের পর এক মুখে পুরতে থাকেন। তাহলে সাবধান হোন। কারণ নিয়মিত মিষ্টি বা মিষ্টি জাতীয় খাবার খেলে ব্লাড সুগার বা ওবেসিটিক ছাড়াও মারাত্মক রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। বিজ্ঞানীরা এমনটাই জানিয়েছেন।

সমীক্ষায় জানা গেছে, অতিরিক্ত মিষ্টি খাবার খেলে শুধু ব্লাড সুগারই নয়, অবসাদের শিকার হতে পারেন আপনি।

বিশেষ করে পুরুষদের মধ্যে এতে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা সবচেয়ে বেশি।

বিজ্ঞানীদের মতে, অতিরিক্ত মাত্রায় মিষ্টি খেলে পুরুষদের মধ্যে মেন্টাল ডিসঅর্ডার দেখা যায়।

ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের বিজ্ঞানী অ্যানিকা নুপ্পেল জানিয়েছেন, অতিরিক্ত মাত্রায় মিষ্টি খেলে শারীরিক ক্ষতি তো হয়ই। কিন্তু মিষ্টির সাথে মানুষের মেজাজের এক বিশেষ যোগাযোগ রয়েছে। এমনিতেই ডায়েট চার্ট মানুষের মানসিক স্বাস্থ্যের উপরে প্রভাব ফেলে। কিন্তু ডায়েটে যদি অধিকাংশ ভাগই মিষ্টি থাকে, তা হলে অবসাদের মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

বিজ্ঞানীরা সমীক্ষায় দেখেছেন, পাঁচ বছরে যারা বেশি মাত্রায় মিষ্টি খাবার ও পানীয় খেয়েছেন, তাদের অধিকাংশই অবসাদে আক্রান্ত হয়েছেন। তুলনায় যারা কম মিষ্টি খেয়েছেন তারা কম অবসাদগ্রস্ত হয়েছেন।

অ্যানিকা নুপ্পেল জানিয়েছেন, সাধারণত মানুষের মেজাজ খারাপ থাকলে তাদের মধ্যে মিষ্টি খাওয়ার প্রবণতা বেশি থাকে। তারা ভাবেন, মিষ্টি খেলেই মেজাজ ভালো হয়ে যায়। কিন্তু হয় উল্টোটা। সাময়িকভাবে মেজাজ ঠিক হলেও, অবসাদে আক্রান্ত হতে পারে মানুষ।

চিকিৎসকদের মতে, অবসাদ বা ডিপ্রেশনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিনদিন বেড়ে চলেছে। অধিকাংশ রোগেরই মূল কারণ অবসাদ বলে জানিয়েছেন তারা। কম বয়স থেকেই অবসাদের শিকার হলে, ব্লাড সুগার, স্নায়ু রোগ, হার্টের সমস্যা ইত্যাদি হতে পারে।

সূত্র : ইন্টারনেট

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.