ঢাকা, সোমবার,২৬ জুন ২০১৭

অর্থনীতি

সরবরাহ বাড়াতে বাকিতে চাল আমদানির অনুমোদন

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক

১৯ জুন ২০১৭,সোমবার, ২০:১৩ | আপডেট: ১৯ জুন ২০১৭,সোমবার, ২০:১৭


প্রিন্ট

এবার গ্রাহকের ব্যাংক হিসাবে টাকা না থাকলেও চাল আমদানি করা যাবে। অর্থাৎ বাকিতেই চাল আমদানির এ সুযোগ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

চালের বাজারে অস্থিতিশীলতা কাটাতে ও চাল সরবরাহ বাড়াতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ অনুমোদন দিয়েছে।

আজ সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ বিষয়ে এ সার্কুলার জারি করেছে।

জানা গেছে, চালসহ যেকোনো পণ্য আমদানিতে গ্রাহক অগ্রিম অর্থ পরিশোধ করে থাকে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে শতভাগ ব্যয় পরিশোধের পরই কেবল ব্যাংক সংশ্লিষ্ট পণ্য আমদানির জন্য আমদানি ঋণপত্র স্থাপন (এলসি) করে থাকে। কিন্তু নগদ টাকা না থাকায় অনেক ব্যবসায়ী চাল আমদানির জন্য ঋণপত্র স্থাপন (এলসি) করতে পারছে না। এ কারণে চালের মজুদের ওপর যেমন প্রভাব পড়ছে, তেমনি স্থানয়ি পর্যায়ে মোটা চালসহ সবধরণের চালের দাম হু হু করে বেড়ে চলছে। এমনি পরিস্থিতিতেই কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে এ উদ্যোগ নিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে জারিকৃত সার্কুলারে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ে হাওর এলাকার বন্যা, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে অতিবৃষ্টিসহ অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে চালের স্বাভাবিক সরবরাহ বিঘ্ন ঘটে যাতে চালের বাজারে অস্থিতিশীলতা তৈরি হয়েছে। এ কারণে চাল আমদানিতে ব্যাংকার-গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে বিনা মার্জিনে ঋণপত্র খোলার পরামর্শ দেয়া যাচ্ছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য হিসেবে বাজারে চালের সরবরাহ নিশ্চিত করতে ব্যাংক গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে শূন্য মার্জিনে অর্থাৎ শতভাগ বাকিতেই চাল আমদানির ব্যবস্থা করতে ব্যাংকগুলোকে পরামর্শ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, বাকিতে চাল আমদানির সুযোগ আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বহাল থাকবে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫