ঢাকা, বুধবার,২৩ আগস্ট ২০১৭

ফ্যাশন

কেমন হবে ঈদের জুতা

শওকত আলী রতন

১৯ জুন ২০১৭,সোমবার, ১৪:০৬


প্রিন্ট

যেকোনো উৎসব আয়োজনে পোশাকের সাথে চাই মানানসই জুতা।
ঈদে যেহেতু ছেলেদের নামাজের বিষয়টি থাকে, তাই ছেলেরা পায়জামা-পাঞ্জাবি ও ফতুয়ার সাথে ম্যাচ করে স্যান্ডেল পরে থাকেন ঈদের দিন সকালে। এ ক্ষেত্রে ছেলেদের জন্য ক্যাজুয়াল ও ফর্মাল দুই ধরনের সংগ্রহ রেখেছে ব্র্যান্ড শপ আর রকমারি জুতার দোকানগুলো। পিওর লেদার ও আর্টিফিশিয়াল লেদারে তৈরি স্যান্ডেলের বেশ রকমারি সংগ্রহ এসেছে ঈদ বাজারে। ফর্মাল চাইলে দেখতে পারেন ফ্যাশনেবল মোকাসিন, লেদার সু ও বোট সু। এবার অতিরিক্ত গরম থাকায় আগে থেকেই সেভাবেই প্রস্তুতি নিয়েছে স্যান্ডেল তৈরির প্রতিষ্ঠানগুলো।
স্টাইলিশ ক্যাজুয়াল লুকের জন্য স্নিকার্স বেশ জুতসই রাবারের সোলের সঙ্গে উপরের অংশ কাপড়ের তৈরি। ক্রেতাদের পছন্দের কথা বিচেনায়ই প্রতি বছর ঈদে নতুন নতুন ডিজাইন যুক্ত হয় বলে জানা যায়। বেশির ভাগ স্যান্ডেলই তারুণ্যনির্ভর। রাজধানীর এপেক্স শোরুমের এক কর্মকর্তার জানান, যে কোনো উৎসবের চেয়ে ঈদে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়ে থাকে। তাই বছরের অন্য সময়ের তুলনায় ঈদে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়। ব্র্যান্ডের প্রতিষ্ঠানগুলো এবার ছেলে ও মেয়ে উভয়েরই বেশ কিছু নতুন ডিজাইনের জুতা এনেছেন ঈদবাজারে। অন্য বছরের মতো এবারও নতুন নতুন কালেকশন নিয়ে এসেছে ব্র্যান্ডের প্রতিষ্ঠান বাটা, লোটো, এপেক্স, বে, রাদু ইত্যাদি। নতুন কালেকশনই প্রথম পছন্দ থাকবে সবার।
ছেলেদের জুতার পাশাপাশি মেয়েদের জুতায় থাকে বর্ণিল ডিজাইন। মেয়েদের স্যান্ডেল ও জুতার ডিজাইনে ব্যবহার করা হয় বোতাম, ফুল, ফিতা আর কৃত্রিম পাথরের। স্যান্ডেলের ফিতার ডিজাইনেও থাকছে ভিন্নতা। ক্রস, রাউন্ড, সেমি-রাউন্ড, বেল্টের মতো ফিতার নকশা। স্ট্র্যাপের স্যান্ডেলে অনেক ফিতার ব্যবহারে নকশাটাও হয় বেশ বাহারি। চাইলে পাবেন স্ট্র্যাপি হাইহিল। উপকরণ সিনথেটিক বা লেদার দুই ধরনেরই হতে পারে। স্যান্ডেলের নকশা হচ্ছে বোতাম, জরি, চুমকি আর কুন্দন। হালফ্যাশনের হিল চাইলে বাজারে পাবেন বক্স হিল, ওয়েজেস হিল, ক্লোজড শুন, সেমিহিল, পাম্প বা ব্যালোরিনা সুসহ অনেক ধরনের হিল। তবে পুরো পা ঢাকা পেনসিল হিল এবং শুধু ফিতা দিয়ে নকশা করা ফ্ল্যাট বা ওয়েজেস হিলের সংগ্রহ চোখে পড়ার মতো। চোখ ধাঁধানো এসব ডিজাইন সত্যিকার অর্থে ক্রেতাদের নজর কাড়বে নিঃসন্দেহে।
দরদাম : উপাদান ও উপকরণের ওপর নির্ভর করে এসব জুতা পাওয়া যাবে। চামড়ার স্যান্ডেলের দাম ৭০০ থেকে শুরু করে ২৫০০ টাকার মধ্যে, বুট সু ১৩৫০ থেকে ৩৬৫০, স্নিকার্স ৮৫০ থেকে ২৪৫০ এবং বিভিন্ন ডিজাইনের মোকাসিন ১৫৫০ থেকে ৪০০০ টাকা। আর শিশুদের জুতা পাওয়া যাবে ১০০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যে। রাবার বা স্পঞ্জের স্যান্ডেলগুলো পাওয়া যায় ১৫০ থেকে ৪০০ টাকার মধ্যেই।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫