ঢাকা, শুক্রবার,১৮ আগস্ট ২০১৭

পাঠক গ্যালারি

সেবায় নিয়োজিত একটি সংগঠন

হাফেজ মোহাম্মদ আমান উল্লাহ

১২ জুন ২০১৭,সোমবার, ১৪:০৪


প্রিন্ট

বাংলাদেশে আর্ত-পীড়িত মানুষের সেবার মাধ্যমে যেসব সংগঠন খ্যাতি অর্জন করেছে এর মধ্যে ‘চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল রোগী কল্যাণ সমিতি’ অন্যতম। সুদীর্ঘকাল ধরে সমিতি সমাজসেবায় নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। ১৯৬২ সালের ১৩ ডিসেম্বর কিছু মহৎ প্রাণ মানবতাবাদী মানুষের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল রোগী কল্যাণ সমিতি গঠিত হয়।
সমিতির লক্ষ্য-উদ্দেশ্যের মধ্যে আছে, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে দরিদ্র এবং অসহায় রোগীদের ভর্তি ও চিকিৎসার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা। হাসপাতালে ভর্তিকৃত দুস্থ রোগীদের যাবতীয় চিকিৎসা সরঞ্জাম প্রদানসহ যাতায়াত খরচ বহন। প্রয়োজন অনুযায়ী রোগীর চিকিৎসা-পরবর্তী ফলোআপের ব্যবস্থা করা।
হাসপাতালে পরিত্যক্ত শিশুদের চিকিৎসাসেবা প্রদান এবং সরকারি শিশু সদন, ছোটমণি নিবাস ও শিশু পরিবারে ভর্তির মাধ্যমে পুনর্বাসন। হাসপাতালে ভর্তিকৃত রোগীদের জন্য পাঠাগার পরিচালনাসহ বিনোদনের ব্যবস্থা। সমিতির সদস্যদের হাসপাতাল পরিদর্শন এবং সর্বস্তরের রোগীদের খোঁজখবর নেয়া এবং কোনো অসঙ্গতি ও অসুবিধা দেখা গেলে তা নিরসনের চেষ্টা করা। রোগীদের কল্যাণে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন। দুরাগত রোগীদের থাকার ব্যবস্থা ‘হোম’ বা রোগী নিবাস স্থাপন এবং লাশ পরিবহনে আর্থিক সহায়তা প্রদান। সমিতির সহায়তাপ্রাপ্ত রোগীর নাম-ঠিকানা রেজিস্ট্রারে সংরক্ষণ এবং প্রয়োজন বোধে রোগীর ঠিকানা অনুযায়ী এলাকায় যোগাযোগের মাধ্যমে রোগীকে সহায়তা প্রদান করা।
প্রতি বছর পবিত্র রমজান মাসে জাকাত ও দানের ফজিলত বিষয়ে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বায়তুশ শরফের পীর আল্লামা শাহ মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন ছাহেবকে দাওয়াত দেয়া হয় এতে। তিনি রমজানের তাৎপর্য এবং জাকাত ও দানের ফজিলত বিষয়ে আলোচনা করেন। নিজে রোগী কল্যাণ সমিতির তহবিলে জাকাত প্রদান করেন এবং তার আহ্বানে সাড়া দিয়ে অনেক ধর্মপ্রাণ, মহৎ ব্যক্তি সমিতির জাকাত ও দান তহবিলে আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। রোগী কল্যাণ সমিতির পরিচালনা কমিটির আহ্বানে সাড়া দিয়ে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন সমিতির জন্য কোটি টাকার একটি তহবিল গঠন করার আশ্বাস প্রদান করেছেন।
সমিতির নিজস্ব কোনো আয়ের উৎস নেই। সর্বসাধারণের সাহায্যই এর একমাত্র অর্থের উৎস। বিত্তবান মুসলমানদের জাকাত থেকে প্রাপ্ত অর্থ সম্পূর্ণরূপে ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক দরিদ্র ও জাকাতের হকদার- এমন রোগীদের কল্যাণে ব্যয় হয়। অপরাপর এককালীন সাহায্য মুসলমান-অমুসলমান জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সব গরিব রোগীর কল্যাণে ব্যয় করা হয়। সমিতির ফান্ড সৃষ্টি করা হয় আজীবন সদস্য পদ লাভ করার জন্য প্রদত্ত অর্থ দিয়েও। আজীবন সদস্য ফি পাঁচ হাজার টাকা, ফরম সংগ্রহ ফি ১০ টাকা এবং আইডি কার্ড ৫০ টাকা; মোট পাঁচ হাজার ৬০ টাকা।
বিত্তবানদের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি, তারা যেন সাধ্যমতো সাহায্যের পাশাপাশি আজীবন সদস্য পদ লাভে এগিয়ে আসেন। সমিতির আজীবন সদস্য এক হাজার আটজন।
রোগী কল্যাণ সমিতির কার্যক্রমের মাধ্যমে তিন লক্ষাধিক দুস্থ, অসহায়, পীড়িত রোগী চিকিৎসাসেবা পেয়ে উপকৃত হয়েছে। মে ২০১৬ থেকে এপ্রিল ২০১৭ পর্যন্ত সামাজিকভাবে উপকৃতের সংখ্যা ৯,১৩৫ জন, আর্থিকভাবে উপকৃতের সংখ্যা ৩,১৪৮ জন। মে ২০১৬ থেকে এপ্রিল ২০১৭ পর্যন্ত রোগী কল্যাণ সমিতির মাধ্যমে জাকাত খাতে ৪২,০৭,২০০ টাকা, আজীবন সদস্য ফি ২,৬৮,৫৪০ টাকা, দান তহবিলে ১৪,৯৫,০৭৮ টাকা, ব্যাংক ও মেয়াদি আমানত মুনাফা ৫,১৩,১৭৩ টাকা ও জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদের অনুদান ৮,০০,০০০ টাকা। সংগৃহীত মোট ৭২,৮৩,৯৯১/- ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে এক কোটি টাকার একটি সম্ভাব্য বাজেট প্রণয়ন করা হয়েছে। তা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সবার সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বর্তমান পরিচালক পদাধিকারবলে রোগী কল্যাণ সমিতির সভাপতি। পদাধিকার বলে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন হাসপাতাল সমাজসেবা কর্মকর্তা।
রোগী কল্যাণ সমিতির ফান্ডের বেশির ভাগ আসে রমজান মাসে। রমজান মাসে জাকাতদাতাদের প্রতি সমিতির ফান্ডে বিত্তবানদের জাকাতের অংশবিশেষ প্রদানের আবেদন জানাচ্ছি। একই সাথে সর্বস্তরের জনসাধারণের কাছেও আবেদন জানাই- আসুন রোগী কল্যাণ সমিতির ফান্ডকে শক্তিশালী করে এবং মানবতাবোধে উজ্জীবিত হয়ে আর্তের পাশে দাঁড়াই। ১) রোগী কল্যাণ সমিতির (জাকাত তহবিল) হিসাব নং-৩৪০-৩২২৩৪/ ০২০০০০৩০ ৪৬০১৩, অগ্রণী ব্যাংক, মেডিক্যাল কলেজ শাখা, চট্টগ্রাম। ২) রোগী কল্যাণ সমিতির (জাকাত তহবিল) হিসাব নং- ১৪২-২৩০১-০০০০০০১৪৮, ইউসিবিএল, মেডিক্যাল কলেজ শাখা, চট্টগ্রাম। ৩) রোগী কল্যাণ সমিতি (দান তহবিল) হিসাব নং-৩৪০-০০৪০৬/০২০০০০২৯৭৬৬৪২, অগ্রণী ব্যাংক, মেডিক্যাল কলেজ শাখা, চট্টগ্রাম। ৪) রোগীকল্যাণ সমিতি (দান তহবিল ) হিসাব নং-১৪২২৩০১০০০০০০৪৪৫, ইউসিবিএল, মেডিক্যাল কলেজ শাখা, চট্টগ্রাম।
এই মহৎ উদ্যোগের সাথে প্রতিষ্ঠাকালে যারা বিভিন্নভাবে জড়িত ছিলেন তাদের বেশির ভাগই আজ আমাদের মধ্যে নেই। তাদের সবার মাগফিরাত কামনা করছি। কোনো মহৎ কাজ এক দিনেই হয় না। এ জন্য দরকার দীর্ঘ দিনের ত্যাগ, পরিশ্রম, নিরলস প্রচেষ্টা এবং সাংগঠনিক দক্ষতা। সমিতি যে গতি ও তৎপরতার সাথে এগিয়ে চলেছে তার পেছনেও রয়েছে অনেক ত্যাগ ও সুষ্ঠু পরিকল্পনা। একদল মহৎপ্রাণ মানুষের অক্লান্ত পরিশ্রম ছিল বলেই সংগঠনটির অগ্রযাত্রা থেমে যায়নি। সাথে শুরু থেকে আজ পর্যন্ত যারা বিভিন্নভাবে জড়িত ছিলেন এবং আছেন প্রত্যেককে গভীর শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।হ
লেখক : তথ্য প্রকাশনা ও প্রচার সম্পাদক, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল রোগী কল্যাণ সমিতি।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫