ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৯ জুন ২০১৭

ক্রিকেট

চেনারূপে ফিরলেন দু’জন

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১৯ মে ২০১৭,শুক্রবার, ২২:০৮


প্রিন্ট

 

২০১৫ সালে চট্টগ্রামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৮৮* ও ৯০ রানের দুটি ইনিংসের পর
থেকেই যেন কিছুটা ম্লান সৌম্য সরকার। এর মধ্যে টেস্টে কিছু রান পেলেও নিজের প্রিয়
ওয়ানডেতে খুজে পাওয়া যাচ্ছিল না তাকে। সমালোচনাও উঠেছিল বিভিন্ন মহল থেকে,
তবে তার ওপর আস্থা রেখেছে টিম ম্যানেজমেন্টে। আর ইনজুরি থেকে ফেরা পেসার
মোস্তাফিজুর রহমানও যে সেরা ছন্দে ফিরবেন বলেই পণ করে মাঠে নেমেছেন!
আয়ারল্যান্ডে ব্যাটে-বলে এই দুই জনের পারফরম্যান্সেই জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

 

সৌম্যর ক্রিকেটীয় মেধা নিয়ে সন্দেহ ছিলো না কারোই। নিজেও যেন বদ্ধ পরিকর ছিলেন
ফর্মে ফিরতে। শ্রীলঙ্কা সফরে আভাস দিয়েছেন চেনা ছন্দে ফেরার, আর এবার
আয়ারল্যান্ডের মাটিতে যেন পুরোপুরি নিজেকে ফিরে পেলেন বাঁহাতি টাইগার ওপেনার।
প্রথম ম্যাচে রান না পেলেও নিউজিল্যান্ডে বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচে রানে ফেরেন সৌম্য।
তার ৬৭ বলে ৬১ রানে ভর করে লড়াইয়ের পুজি পায় বাংলাদেশ। তবে মিডল অর্ডারের
ব্যর্থতায়ে সেই ম্যাচে বড় স্কোর পায়নি দল। আজ নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের
বিরুদ্ধে আবারো গর্জে উঠলো তার ব্যাট। অপেক্ষাকৃত ছোট টার্গেট তাড়া করতে নেমে
একেবারে জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছেন সাতক্ষীরার এই তরুণ। উদ্বোধনী জুটিতে তামিম
ইকবালের সাথে ৭৫ ও দ্বিতীয় উইকেটে সাব্বির রহমানের সাথে ৭৬ রানের জুটিতে ম্যাচ
পকেটে পুরেছে মাশরাফি বাহিনী। সৌম্য অপরাজিত ছিলেন ৮৭ রানে। তার ৬৮ বলের
ইনিংসে ছিলো ১১টি চার ও দুটি ছক্কা।

ইনজুরি থেকে ফেরার পর আজই প্রথম চিরচেনা ছন্দে দেখা গেছে মোস্তাফিজকে। ৯ ওভার
বোলিং করে মাত্র ২৩ রানে নিয়েছেন ৮ উইকেট। দিয়েছেন দুটি মেডেন ওভার। তার
চেয়েও বড় কথা তার সেরা অস্ত্র কাটার ও স্লোয়ার দারুণভাবে কার্যকর মনে হয়েছে
আজকের ম্যাচে। বারবার বিভ্রান্ত করেছেন আইরিশ ব্যাটসম্যানদের।
সাধারণত ইনজুরি থেকে উঠে পুরনো ফর্ম ফিরে পেতে সময় লাগে পেসারদের।
সৌম্য সরকারের ‘দেশী’ মোস্তাফিজও নিয়েছেন সেই সময়টা। শ্রীলঙ্কা সফরে সৌম্যর মতো তিনিও দিয়েছেন ফর্মে ফেরার আভাস। আর এই সিরিজে তিন ম্যাচে এখনো পর্যন্ত নিয়েছেন ৮ উইকেটে। আসন্ন চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সৌম্যর ব্যাট আর মোস্তাফিজের বল ‘কথা বললে’ বাংলাদেশ দল ভালো কিছু করবে এমন আশায় আছেন কোটি সমর্থক।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫