প্রধান দুই দলের মধ্যে সঙ্ঘাতের আশঙ্কা

ছাগলনাইয়ায় বিএনপি দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী কামাল আটক

ছাগলনাইয়া-পরশুরাম (ফেনী) সংবাদদাতা
ছাগলনাইয়ায় শুভপুর ইউনিয়নে বিএনপি দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা বিএনপির সদস্য কামাল উদ্দিনকে গত বুধবার রাত সাড়ে ৩টায় বাড়ি থেকে আটক করেছে পুলিশ। সৎভাইয়ের স্ত্রীকে মারধর, ঘর ভাঙচুর, চুরি, শ্লীলতাহানিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ফেনীর আমলি আদালতের বিচারকের এফআরটির ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয় বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। তবে ওই বিরোধ কেন্দ্র করে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ নামধারী বেশ কিছু নেতাকর্মী প্রকাশ্যে বিভক্ত হয়ে তাদের পক্ষ নেয়ায় যেকোনো মুহূর্তে বড় ধরনের সঙ্ঘাতের আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।
জানা গেছে, উপজেলার জয়চাঁদপুর গ্রামের সুলতান আহম্মদের ছেলে কামাল উদ্দিনের সাথে তার সৎভাই মহি উদ্দিনের স্ত্রী আনোয়ারা বেগমের বসতবাড়ির জায়গা-বসতঘর নিয়ে বিরোধ ছিল। কয়েক দিন আগে কামাল উদ্দিন ওই জায়গার মালিকানা দাবি করে স্থানীয় ও বহিরাগত লোকজন নিয়ে জোরপূর্বক আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সীমান্ত দেয়াল নির্মাণ ও একটি পুরনো টিনের ঘর ভেঙে টিন ও কাঠ লুট করেন বলে অভিযোগ করেন আনোয়ারা বেগম। তবে বরাবরই এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কামাল উদ্দিন।

এ নিয়ে দুইপক্ষ পৃথক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ আনে। অপর দিকে কামাল উদ্দিন ও আনোয়ারা বেগমের মধ্যে জায়গার বিরোধ কেন্দ্র করে স্থানীয় ও উপজেলা পর্যায়ের বিএনপি ও আওয়ামী লীগের বেশ কিছু নেতাকর্মী তাদের পক্ষে অবস্থান নেয়ায় কয়েক দিন ধরে এলাকায় তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছিল। গত মঙ্গলবার ঘর ভাঙচুর, চুরি ও শ্লীলতাহানিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ফেনীর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে কামাল উদ্দিনকে প্রধান আসামি করে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ছয়জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাত ২০-৩০ জনের নামে পিটিশন মামলা দায়ের করেন। আদালত এফআরটিভুক্ত করে অভিযোগ থানায় পাঠান। বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে গভীর রাতে প্রবল বর্ষণের মধ্যে পুলিশ কামাল উদ্দিনের জয়চাঁদপুরে গ্রামের বাড়ি ঘেরাও করে রাখে। ছাগলনাইয়া থানার এসআই মাহবুবুল আলম সরকারের নেতৃত্বে রাত সাড়ে ৩টায় কামাল উদ্দিনকে আটক করে পুলিশ থানায় নিয়ে আসে। গতকাল তাকে কোর্টহাজতে পাঠানো হয়েছে। 
প্রসঙ্গত, বিএনপি নেতা কামাল উদ্দিনের প্রতিপক্ষ আনোয়ারা বেগম ফেনীর পূর্বাঞ্চলের ত্রাস হিসেবে পরিচিত র‌্যাব-পুলিশের কথিত ক্রসফায়ারে নিহত যুবদল নেতা নিজাম উদ্দিন ওরফে নিজাম ডাকাতের বোন। দুইপক্ষের বিরোধটি পারিবারিক হলেও কিছু দিন ধরে কামাল উদ্দিন ও আনোয়ারা বেগমের পক্ষ নিয়ে প্রকাশ্য বিরোধে জড়িয়ে পড়েছেন স্থানীয় ও উপজেলাপর্যায়ের বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের বেশ কিছু নেতাকর্মী। তাদের সাথে যুক্ত হয়েছেন ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নামধারী বেশ কিছু উঠতি বয়সী যুবক। বুধবার রাতে কামাল উদ্দিনকে আটককালে এলাকায় বহু বহিরাগত যুবককে স্থানীয়রা দেখেছেন বলে জানিয়েছেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.