ঢাকা, সোমবার,২১ আগস্ট ২০১৭

শেষের পাতা

জাতীয় স্বার্থে যে কারো ওপর নজরদারি করা হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

১৯ মে ২০১৭,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট
পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী বলেছেন, জাতীয় স্বার্থ সংরণের জন্য যে কারো ওপর নজরদারিসহ যা কিছু করণীয় সরকার সবই করবে। বিদেশে গিয়ে কোনো সাংবাদিক যদি জাতীয় স্বার্থবিরোধী কোনো কাজ করেন তাদের অবশ্যই নজরদারিতে রাখা উচিত। 
বিদেশে বাংলাদেশী সাংবাদিকদের কর্মকাণ্ড নজরে রাখতে সব মিশন প্রধানকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাঠানো নির্দেশনাসংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন। নির্দেশনায় বাংলাদেশী কোনো সাংবাদিক বিদেশে এ দেশের স্বার্থবিরোধী কোনো কর্মকাণ্ড বা নেতিবাচক প্রচারণায় লিপ্ত হলে তা তাৎণিকভাবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানাতে বলা হয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহিঃপ্রচার অনুবিভাগের মহাপরিচালক গত বুধবার বিদেশে সব মিশন প্রধানের কাছে ফ্যাক্স বার্তায় এ নির্দেশনা পাঠান।
প্রধানমন্ত্রীর সৌদি আরব সফরের ওপর আলোকপাত করে গতকাল আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মাহমুদ আলী বলেন, যা ইচ্ছে তাই লেখা হচ্ছে। বিশ্বের কোন দেশ আছে এ রকম? তিনি বলেন, কাউকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এ নির্দেশনা জারি হয়নি। গণতান্ত্রিক বাংলাদেশে সাংবাদিকেরা স্বাধীনতা ভোগ করছেন। এ েেত্র সাংবাদিক সামজেরও সমর্থন আশা করেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে একজন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক নিয়ন্ত্রণমূলক এ নির্দেশনা প্রত্যাহারের জন্য মন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, অনেকেই বিদেশে যান। সেখানে কেবল সাংবাদিকদের নজরদারিতে রাখার নির্দেশনা সার্বজনীন মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ধারণার পরিপন্থী।
কাউকে বিদেশ সফরে বাধা দেয়া হচ্ছে না দাবি করে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে বিদেশী সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ করে নিয়ে আসা হচ্ছে। তারা সবকিছু খোলাখুলিভাবে দেখছেন। বাংলাদেশী সাংবাদিকেরাও বিদেশে যাচ্ছেন। কাউকে বাধা দেয়া হয়নি। কাউকে বাধা দেয়া হলে আমাকে জানাবেন।
বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ মিশনগুলোতে পাঠানো নির্দেশনার প্রেক্ষাপটে বলা হয়েছে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়বিষয়ক সংসদীয় কমিটির দ্বাদশ বৈঠকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কয়েকজন বাংলাদেশী সাংবাদিকের নেতিবাচক প্রচারণায় উদ্বেগ জানানো হয়েছে। বৈঠকে কমিটি মত দিয়েছে, কোনো বাংলাদেশী সাংবাদিক বিদেশে গেলে তা নজরে রাখা এবং তার কোনো কর্মকাণ্ড দেশের স্বার্থবিরোধী হলে তা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানানো উচিত।
৩০ মার্চ সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এ বিষয়ে সংসদ সদস্য মাহজাবিন খালেদ বলেন, গত কয়েক বছরে ঢাকায় অবস্থিত পাকিস্তান হাইকমিশন কিছুসংখ্যক বাংলাদেশী সাংবাদিককে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানায়। এসব সাংবাদিক নানা স্থানে বিভিন্ন ব্যক্তির সাথে সাাৎ করে অপপ্রচার চালাচ্ছেন। গণমাধ্যমে রাষ্ট্রবিরোধী কথাবার্তাসহ গণহত্যা বিষয়ে ভুল তথ্য দিচ্ছেন।
সংসদীয় কমিটির বৈঠকের আলোচনা ও সুপারিশের পরিপ্রেেিত পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিদেশে বাংলাদেশ মিশনগুলোকে এ নির্দেশনা পাঠায়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫