ঢাকা, বৃহস্পতিবার,১৭ আগস্ট ২০১৭

প্রথম পাতা

একটি মহল বিচার বিভাগকে অকার্যকর করার চেষ্টা করছে : প্রধান বিচারপতি

টাঙ্গাইল সংবাদদাতা

১৯ মে ২০১৭,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, একটি মহল এ দেশের বিচার বিভাগকে অকার্যকর করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়নের স্বার্থে ও অর্থনীতিকে সচল রাখতে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা অপরিহার্য। তিনি গতকাল টাঙ্গাইল জেলা বার সমিতি মিলনায়তনে আইনজীবীদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন। 
ইদানীং শান্তিপূর্ণ এই দেশে সন্ত্রাস মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে উল্লেখ করে প্রধান বিচারপতি বলেন, একটি গোষ্ঠী ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে সন্ত্রাস করছে। তবে নিরপরাধ মানুষকে মেরে নিজে মরে যাওয়ার নাম জিহাদ নয়। কোনো ধর্মই এটি বিশ^াস করে না। পৃথিবীর সবচেয়ে মডার্ন ইসলামের ধর্মগ্রন্থে কোথাও সন্ত্রাসকে সমর্থন করা হয়নি। হাদিসের অপব্যাখ্যা করে ফতোয়া দেয়াও ইসলাম পরিপন্থী। সরকারের পক্ষে একা এই সন্ত্রাস বন্ধ করা সম্ভব নয়। এ জন্য আইনজীবীসহ সবাইকে সোচ্চার হতে হবে। 
তিনি বলেন, বিচার বিভাগের ওপর আস্থা রাখলে এবং বিচারকদের প্রতি সম্মান রেখে কথা বললে দেশে অন্যায়, দুর্নীতি অনেক কমে যাবে। কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়। এমনকি বিচারকরাও আইনের ঊর্ধ্বে নন। বিচার বিভাগ স্বাধীন কিন্তু বিচারকেরা স্বাধীন নন। তারাও আইন দ্বারা সীমাবদ্ধ। কিছু রুলস ও এথিক্স আছে যার বাইরে বিচারকেরা যেতে পারেন না। আইনের বাইরে তারা কোনো কাজ করতে পারেন না। 
মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন টাঙ্গাইল জেলা বার সমিতির সভাপতি আবদুর রাজ্জাক। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রেজিস্ট্রার মো: জাকির হোসেন। অন্যদের মধ্যে সভায় বক্তব্য রাখেন বার সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু রায়হান খান, সাবেক সভাপতি কে এম আব্দুস সালাম, নূরুল ইসলাম ও আবদুল বাকি মিয়া। 
প্রধান বিচারপতি এর আগে বিভিন্ন আদালত পরিদর্শন করেন। বিকেলে তিনি জেলা জজ আদালত ভবনের নবনির্মিত দোতলার উদ্বোধন করেন। এ ছাড়া মঙ্গলবার রাতে তিনি টাঙ্গাইল সার্কিট হাউজে জেলা জজশিপ আয়োজিত বিচার বিভাগীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫