ঢাকা, সোমবার,২৯ মে ২০১৭

নগর মহানগর

খুলনা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস-২ চলাচল

আলোচনা করতে রেলওয়ের পাঁচ কর্মকর্তা ভারত যাচ্ছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ মে ২০১৭,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট
খুলনা ও কলকাতার মধ্যে মৈত্রী এক্সপ্রেস-২ চলাচলে চূড়ান্ত আলোচনা করতে বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল ২২ মে ভারত যাচ্ছেন। 
 রেলভবন সূত্রে জানা গেছে, প্রতিনিধিদলের অপর সদস্যরা হচ্ছেনÑ অতিরিক্ত মহাপরিচালক (রেলিং স্টক) মো: শামসুজ্জামান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (ফাইন্যান্স) গৌরচন্দ্র রায়, খায়রুল আলম (রেলওয়ের পশ্চিমঞ্চলের জেনারেল ম্যানেজার) এবং উপপরিচালক (অপারেশন) কালিকান্ত ঘোষ। 
গতকাল রেলওয়ের পরিচালক (ট্রাফিক) এবং জনসংযোগের দায়িত্বে থাকা সৈয়দ জহুরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি নয়া দিগন্তকে নিশ্চিত করেন।
বাংলাদেশ রেলওয়ের এক কর্মকর্তা গত রাতে জানান, প্রতিনিধি দলটি ২৩ ও ২৪ মে দুই দিন ভারতীয় প্রতিনিধি দলের সাথে বৈঠক করবেন। এর মধ্যে খুলনা ও কলকাতার মধ্যে মৈত্রী এক্সপ্রেস-২ এর সময়সূচি, কোচ ও সিট পজিশন, ভাড়া শেয়ারিংসহ অন্যান্য  বিষয়েও আলোচনা করবেন। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত খুলনা-কলকাতার মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচলের সম্ভাব্য দিনক্ষণ আগামী ১ জুলাই নির্ধারণ রয়েছে। 
সূত্র জানিয়েছে, সাতটি বগি দিয়ে খুলনা-কলকাতা রুটে মৈত্রী এক্সপ্রেস-২ চলাচল শুরু করবে। আসন থাকবে ৪১৮টি। এসি ও ননএসি সব ধরনের আসন থাকবে এ ট্রেনটিতে। প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে একদিন চলাচল করবে মৈত্রী এক্সপ্রেস-২। যাত্রীদের মধ্যে সাড়া পাওয়ার পর ট্রিপের সংখ্যা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। 
 মৈত্রী-২ চালু হলে খুলনা থেকে ছেড়ে ৪ ঘণ্টায় ট্রেনটি কলাকাতার চিতপুরে পৌঁছাবে। এর আগে খুলনা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস-২ চালু হওয়া উপলক্ষে গত ৮ এপ্রিল বাংলাদেশ রেলওয়ের চিফ মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারের নেতৃত্বে ট্রায়াল অনুষ্ঠিত হয়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫