ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৯ জুন ২০১৭

ক্রীড়া দিগন্ত

সেনাবাহিনীর ১৪তম শিরোপা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

১৯ মে ২০১৭,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট
চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর আনন্দে আত্মহারা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী হকি দল : নয়া দিগন্ত

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর আনন্দে আত্মহারা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী হকি দল : নয়া দিগন্ত

জাতীয় হকি চ্যাম্পিয়নশিপ মানেই সেনাবাহিনীর আধিপত্য। আগের ৩০ আসরের ১৩টিতেই চ্যাম্পিয়ন তারা। এরপরেই ৯ বার শিরোপা জয় ঢাকা জেলার। তবে গতকালের ফাইনালে ফেবারিট ছিল সে নৌবাহিনী। জাতীয় দলের ১৪ খেলোয়াড়ই যে তাদের। বিপরীতে সেনাবাহিনীতে জাতীয় দলে খেলার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন সদস্য সংখ্যা সাতজন। অথচ এবারো শেষ হাসি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর। নৌবাহিনীকে টাইব্রেকারে ৫-৪ গোলে হারিয়ে জাতীয় হকির ১৪তম শিরোপা ঘরে তুলল সেনাবাহিনী। মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনালের নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হয় ৩-৩ গোলে।
এখনো জাতীয় হকির ট্রফি জেতা হয়নি নৌবাহিনীর। গতকালের আগ পর্যন্ত ফাইনালেও খেলতে পারেনি। এবার প্রথম ফাইনালকে শিরোপা জয়ের মাধ্যমে স্মরণীয় করে রাখার সুযোগ ছিল তাদের। কিন্তু খেলোয়াড়দের অতি আত্মবিশ্বাসই সব সম্ভাবনার ইতি ঘটায়। ম্যাচ শেষে এভাবেই স্টিকধারীদের কাঠগড়ায় দাঁড় করান নৌবাহিনীর কোচ মাহাবুব হারুন। তার মতে, খেলোয়াড়রা অতি আত্মবিশ্বাসী ছিলেন এ ম্যাচ জয়ের ব্যাপারে। তারা আমার নির্দেশনা অনুযায়ীও খেলেনি। আমি বলব একমাত্র রাসেল মাহমুদ জিমি ছাড়া কারো খেলাতেই সিরিয়াসনেস ছিল না। অন্য দিকে সেনাবাহিনীর কোচ জাহিদ হোসেন রাজু চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য দলীয় সমন্বয় এবং সমঝোতার কথা উল্লেখ করলেন। তার বক্তব্য, নৌবাহিনীই ছিল শক্তিশালী। আমরা জিতেছি টিম ওয়ার্কের ওপর ভর করে। আমাদের কিছু দুর্বলতা ছিল। সেগুলোকে পুঁজি করেই গোল আদায় করে প্রতিপক্ষরা। ফাইনালে জোড়া গোল করা সেনাবাহিনীর খেলোয়াড় হাসান যুবায়ের নিলয়ের মতে, আমাদের হারানোর কিছুই ছিল না। বিপক্ষ দল অনেক ভালো। স্রেফই পরিকল্পনামাফিক খেলা জিতিয়েছে আমাদের। 
৭০ মিনিটের ম্যাচে ৮ ও ৩৭ মিনিটে ২ গোল করেন নিলয়। সেনাবাহিনীর অপর গোলদাতা মনোজ বাবু। নৌবাহিনীর রোমান সরকার ১৭ মিনিটে, আশরাফুল ২৯ মিনিটে ও জিমি ৩৯ মিনিটে গোল করেন। টাইব্রেকারে বিজয়ী দলের সাব্বির রানা, রোকনুজ্জামান, শফিকুল, মিমো ও টাইব্রেকারের সময় ফাউল থেকে সৃষ্ট স্ট্রোকে সাব্বির রানা আবার গোল করেন। গোলরক্ষক অসীম গোপ ফাউল করেছিলেন আহসান হাবিবকে। নৌবাহিনীর শিটুল, ইমন, ফজলে রাব্বী ও জিমি গোল করলেও রোমান সরকারের হিট ঠেকিয়ে দেন রফিকুল ইসলাম। খেলা শেষে পুরস্কার প্রদান করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫