নিখোঁজের পর শাবি শিক্ষার্থীর ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার

শাবি সংবাদদাতা

নিখোঁজের এক দিন পর শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত শিক্ষার্থীর নাম মুস্তাইন রাজ্জাক মামুর। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অনিয়মিত শিক্ষার্থী ছিলেন। বুধবার সকালে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ রেলস্টেশনের পাশে একটি ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন।
সিলেট রেলওয়ে থানার ওসি জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, সকালে ফেঞ্চুগঞ্জ রেললাইনের পাশের একটি ডোবায় মামুরকে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। চিকিৎসকরা জানান, নিহতের মাথার পেছন দিকে গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে বলে জানান সিলেট রেলওয়ে থানার ওসি জাহাঙ্গীর হোসেন।
পরিবারের সদস্যরা জানান, মঙ্গলবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার কথা বলে সিলেট নগরীর রিকাবীবাজারস্থ বাসা থেকে বের হন মুস্তাইন রাজ্জাক মামুর। এরপর থেকেই তার ফোন বন্ধ ছিল। মামুরের বাবা নগরীর নর্থইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একজন চিকিৎসক। তাদের গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতকে।
প্রক্টর অফিস সূত্রে জানা যায়, নিহত মামুর ২০১১-১২ সেশনে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ভর্তি হন। তবে তিনি নিয়মিত বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতেন না।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.