ঢাকা, সোমবার,২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭

সংসদ

স্পিকারের সাথে সৌদি মজলিসে শুরার স্পিকারের সাক্ষাৎ

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১২ মে ২০১৭,শুক্রবার, ১৯:১৬


প্রিন্ট

সৌদি আরবের বাদশাহর বাংলাদেশ সফরসূচি শিগগিরই চূড়ান্ত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশে সফররত ওই দেশের মজলিশে শুরার স্পিকার ড. আব্দুল্লাহ বিন মোহাম্মদ বিন ইব্রাহীম আলী আল শেখ।

আজ ঢাকার একটি হোটেলে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ নির্বাহী কমিটির চেয়ারপারসন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপির সাথে বিদায়ী সাক্ষাতে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সৌদি মজলিশে শুরার স্পিকার শুরা কাউন্সিলের একটি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

বাংলাদেশ অতিথিপরায়ন দেশ উল্লেখ করে মজলিসে শুরার স্পিকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও এ দেশের স্পিকার যে আন্তরিকতা দেখিয়েছেন তা মনে রাখার মত এবং ওই আন্তরিকতায় কোনো ঘাটতি ছিল না। এ আন্তরিকতার কারণেই সৌদি বাদশাহও শিগগিরই এ দেশ সফর করবেন। সৌদি স্পিকার তার এ সফর নতুন দিগন্তের সূচনা করেছে বলেও উল্লেখ করেন।

সাক্ষাতকালে উভয় স্পিকার দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনাকালে স্পিকার শিরীন শারমিন দু’দেশের সংসদীয় পর্যায়ে সম্পর্ক জোরদারের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন এবং বলেন, উভয় দেশের সংসদীয় পর্যায়ে সফর বিনিময়ের মাধ্যমে বিদ্যমান সম্পর্ক সুদৃঢ় করা সম্ভব।

এ সময় বাংলাদেশের স্পিকার সৌদি মজলিশে শুরার স্পিকার ও প্রতিনিধি দলের সম্মানে এক মধ্যাহ্ন ভোজের আয়োজন করেন।

প্রতিনিধি দলে সৌদি শুরা কাউন্সিলের সদস্য ড. সালেহ এ.এস আলসিহাইব, ড. ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল্লাহ আব্দুল আজিজ আল দারাব ও উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত আব্দুল্লাহ এইচ.এম. আল মুতাইরি উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ এমপি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি, হুইপবৃন্দ, সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতিবৃন্দ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সেক্রেটারি নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি, সংসদ সদস্যবৃন্দ এবং বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সিনিয়র সচিব ড. মোঃ আবদুর রব হাওলাদারসহ সংসদ সচিবালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সূত্র: বাসস

 

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫