ঢাকা, বৃহস্পতিবার,১৭ আগস্ট ২০১৭

ময়মনসিংহ

গায়ের জোড়ে উচ্ছেদ করে শহর গড়ার পরিকল্পনা অবাস্তব : আবুল মকসুদ

ময়মনসিংহ অফিস

২১ এপ্রিল ২০১৭,শুক্রবার, ২০:১৯


প্রিন্ট

গায়ের জোড়ে ৬০ হাজার মানুষ উচ্ছেদ করে শহর গড়ার পরিকল্পনা অবাস্তব বলে মনে করেন লেখক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ।

তিনি বলেছেন, পল্লী এলাকার গাছ-পালা, মসজিদ-মাদরাসা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও বসতভিটা ধ্বংস করে শহর গড়া যায় না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তিনি ব্যক্তিগতভাবে ময়মনসিংহের চরাঞ্চলে অপরিকল্পিতভাবে শহর গড়ার কথা জানাবেন বলেও জানান তিনি।

আজ শুক্রবার বিকেলে ময়মনসিংহের চরাঞ্চলের জয়বাংলা বাজারে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি একথা বলেন।
ইন্টারন্যাশনাল রিভার্স, সলিডারিটি ও ব্লু প্ল্যানেট ইনিশিয়েটিভ’র উদ্যোগে ‘জলবায়ু পরিবর্তন ও পুরাতন ব্রহ্মপুত্র, নদী ও জীবন কথা’ শীর্ষক সমাবেশে তিনি একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে নদী দখল ও দূষণের সাথে প্রভাবশালীরাই জড়িত। অপরিকল্পিত উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণের ফলে নদনদীর ক্ষতি হচ্ছে।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) যুগ্ম-আহবায়ক শরীফ জামিল, বাংলাদেশ নদী সংরক্ষণ কমিশনের সদস্য ড. আলাউদ্দিন, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, ময়মনসিংহ সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ফয়জুর রহমান ফকির, বসতভিটা রক্ষা আন্দোলন কমিটির আজবায়ক প্রফেসর সৈয়দ মোশাররফ হোসেন, চরসিরতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

সভার ময়মনসিংহ বিভাগীয় শহরের প্রস্তাবিত নকশার পরিবর্তে ‘বিকল্প’ প্রস্তাবে নতুন শহর গড়ার দাবি জানিয়ে স্থানীয় বক্তারা বলেন, নতুন শহর বাস্তবায়নের পরিকল্পনা অনুযায়ী ৬০ হাজার মানুষ, ২৮ হাজার বাড়িঘর, ৪৭৫টি পারিবারিক কবরস্থান, ৩০টি সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, তিনটি হাইস্কুল, ছয়টি ঈদগাহ মাঠ, পাঁচটি বাজার, ৪৭টি মসজিদ, ২৫টি মাদরাসা, চারটি মন্দির, দু’টি মাজারসহ বৃক্ষরাজি ধ্বংসস্তুপে পরিণত হবে। এজন্য নতুন শহরের বিকল্প প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। যা মেনে নিলে জনগণ উপকৃত হবে।

উল্লেখ্য, ময়মনসিংহ বিভাগের উন্নয়ন পরিকল্পনায় প্রথমে ব্রহ্মপুত্র নদের তীর ঘেঁষে এক হাজার ২২০ একর জমিতে নতুন শহর গড়ার নকশা প্রণয়ন করা হয়। পরবর্তীতে ওই নকশা বাতিল করে নতুন নকশা অনুযায়ী চার হাজার ৩৬৬ একর ভূমি অধিগ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরপর থেকেই চরাঞ্চলের মানুষ উচ্ছেদের আশঙ্কায় বসতভিটা রক্ষার দাবিতে বিগত পাঁচ মাস ধরে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও স্মারকলিপি প্রদানসহ লাগাতার কর্মসূচি পালন করে আসছেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫