ঢাকা, শুক্রবার,২০ অক্টোবর ২০১৭

বরিশাল

নলছিটিতে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

ঝালকাঠি সংবাদদাতা

১৮ এপ্রিল ২০১৭,মঙ্গলবার, ১৪:২৯


প্রিন্ট

ঝালকাঠির নলছিটিতে এক গৃহবধূকে হত্যার পর লাশ হাসপাতালে রেখে শ্বশুরবাড়ির লোকজন পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে নলছিটি উপজেলার বহরমপুর গ্রামে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহতের স্বজনরা জানান, গৃহবধূ মারুফা আক্তার (১৯) প্রেমহার গ্রামের মৃত মানিক হাওলাদারের মেয়ে এ বছর এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। চার বছর আগে বহরমপুর গ্রমের সুলতান হাওলাদারের ছেলে সুমনের হাওলাদারের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর সৌদি আরব চলে যায় সুমন। এরপর বিভিন্ন সময় শ্বশুর বাড়ির লোকজন ওই গৃহবধূকে নির্যাতন করে আসছিল। সোমবার সন্ধ্যায় মারুফাকে শ্বাসরোধে হত্যার পরে হাসপাতালে নিয়ে আসে তার শাশুড়ি, ননদ ও জা। কর্তব্যরত চিকিৎসক মারুফাকে মৃত ঘোষণা করলে লাশ হাসপাতালে রেখেই তারা পালিয়ে যায়।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বদরুদ্দোজা জোবায়ের জানান, গৃহবধূর মৃত্যুর বিষয়টি ময়না তদন্তের পর জানা যাবে। তার গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। হাসপাতালে লাশ রেখে নিহতের স্বজনরা পালিয়ে গেছেন বলেও তিনি জানান।

মারুফাকে শ্বাসরোধে হত্যা পরে লাশ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয় বলেও অভিযোগ করেন নিহতের স্বজনরা।

নলছিটি থানার ওসি এ কে এম সুলতান মাহামুদ জানান, লাশের ময়না তদন্ত করা হবে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫