বানরদের সঙ্গে ৮ বছরের মেয়ে!

নয়া দিগন্ত অনলাইন

মুভিতে দেখা যায়, মোগলি থাকত নেকড়েদের সঙ্গে, সঙ্গী ছিল ব্ল্যাক প্যান্থার আর ভাল্লুক। জঙ্গলে শের খানের থাবার ভয় থাকলেও প্রাণ বাঁচাতে মানুষের সঙ্গে গিয়ে থাকার কল্পনা পছন্দ ছিল না তার। ভারতের উত্তরপ্রদেশের বাহরাইচে ঠিক এমনই একটি মেয়ের সন্ধান মিলেছে, যে থাকত একদল বানরের সঙ্গে। মানুষের ভাষা বা সঙ্গ- সবটাই তার অজানা।

বানরদের মধ্য থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে ৮ বছরের মেয়েটিকে। যদিও উদ্ধার শব্দটা হয়তো ভুল, বানরদের মধ্যে সে দিব্যি ছিল। স্থানীয় কাতারনিয়াঘাট অভয়ারণ্যের মোতিপুর রেঞ্জে রুটিন টহলের সময় জনৈক সাব ইন্সপেক্টর বানরদের মধ্যে মেয়েটিকে দেখতে পান।

তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করলে বানররা ওই পুলিশকর্মীর দিকে তেড়ে যায়, একইভাবে তেড়ে আসে মেয়েটিও। অনেক চেষ্টার পর তাকে সেখান থেকে সরিয়ে আনতে পারেন তিনি, তাকে জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মেয়েটি মানুষের ভাষা বলতে পারে না, বুঝতেও পারে না। মানুষকে দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছে সে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মাঝে মধ্যে সে তাদের ওপর হামলা চালানোর চেষ্টা করছে।

চিকিৎসায় উন্নতি হয়তো হচ্ছে কিন্তু তার গতি অত্যন্ত ধীর। এখনো খাবার খাচ্ছে সরাসরি মুখ দিয়ে। তাকে ঠিকমতো হাঁটা শেখানোর চেষ্টা চলছে কিন্তু এখনো প্রায়ই সে হাঁটছে হাত আর পা একসঙ্গে ব্যবহার করে, ঠিক বানরের মতো।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.