ঢাকা, সোমবার,২৪ এপ্রিল ২০১৭

এশিয়া

দালাই লামাকে ঘিরে তিক্ততা, হুঁশিয়ারি চীনের

নয়া দিগন্ত অনলাইন

২১ মার্চ ২০১৭,মঙ্গলবার, ০৬:২৪


প্রিন্ট

শিরোনামে আবার দলাই লামা। ভারতে আশ্রিত এই তিব্বতী ধর্মগুরুকে আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানানোয় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ বেইজিং। বিহারে বৌদ্ধদের এক সেমিনারের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন নোবেল শান্তি পুরস্কারজয়ী দালাই লামা। আর তা নিয়েই ব্যাপক ক্ষুব্ধ চীন। তারা দিল্লিকে সতর্ক করে দিয়েছে। দালাই লামার সঙ্গে চীনের সম্পর্ক কোনোদিনই ভালো নয়। চীন তাকে বিচ্ছ্ন্নিতাবাদী বিবেচনা করে।
আর ভারতের সঙ্গেও চীনের সম্পর্ক সব সময়েই চড়াই উতরাই বেয়ে চলে। দালাই লামাকে বিহারের সেমিনারে আমন্ত্রণ জানানোয় সেই সম্পর্ক আরো খারাপ হবে বলেই ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছে চীন।
১৭ মার্চ বিহারের রাজগিরে গিয়েছিলেন দালাই লামা। বৌদ্ধদের এক আন্তর্জাতিক সেমিনারের প্রধান অতিথি ছিলেন তিনি। চলতি মাসেই ভারতকে সতর্ক করে চীন জানিয়েছিল দালাই লামাকে কোনোভাবেই যেন অরুণাচল প্রদেশে ঢুকতে না দেয়া হয়। বেইজিংয়ের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘‌ভারত সরকার দলাই লামাকে আমন্ত্রণ জানানোয় আমরা যথেষ্ট অখুশি। দালাই লামা এবং তার সংগঠন বরাবরই চীনবিরোধী। বিভিন্ন সময়ে চীন সম্পর্কে নিজের অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন দালাই লামা।’‌
বেইজিংয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হুয়া চুনইং তার দেশের তীব্র অসন্তোষের কথা জানিয়ে দিয়েছেন। অরুণাচল প্রদেশের সীমান্ত নিয়ে তো ভারত–চীন বিরোধ লেগেই রয়েছে। অরুণাচলকে দক্ষিণ তিব্বত বলেই মেনে এসেছে চীন। আর সেই অরুণাচলের তাওয়াংয়েই হতে চলেছে আর একটি বৌদ্ধ সম্মেলন, যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজুজুর।‌
চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং বলেন, ‘‌বিতর্কিত এলাকায় দালাই লামার উপস্থিতি মেনে নিতে পারে না তার দেশ।
পাটনা থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরত্বে নালন্দা জেলায় সম্প্রতি বৌদ্ধদের একটি আন্তর্জাতিক সেমিনার হয়ে গেল। ১৭ মার্চ সেটিরই উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন দালাই লামা। বৌদ্ধধর্ম নিয়ে একটি বইও তিনি প্রকাশ করেন সেখানে। বিভিন্ন দেশের বৌদ্ধ ভিক্ষুরা ওই সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।
দালাই লামা বরাবরই চীনবিরোধী মন্তব্য করে এসেছেন। ১৯৮৯ সালে শান্তির জন্য নোবেল পেলেও তিব্বতীদের স্বার্থে চীনের প্রতি অসন্তোষ তার কমেনি। অরুণাচল প্রদেশ নিয়ে ভারতের সঙ্গে বিরোধ বাধায় চীনের উপর যে তিনি বিরক্ত তা আগেই জানিয়েছিলেন দালাই লামা। এদিকে চীনের হুমকি নিয়ে দিল্লি এখনো কোনো জবাব দেয়নি।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫