ওলি-আওলিয়াদের নামে স্বাধীনতাবিরোধী অপবাদ দিয়ে কেউ টিকতে পারবে না : শাহ আতাউল্লাহ

ইসলামী ঐতিহ্য সংরক্ষণ কমিটির সভাপতি মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ বলেছেন, দেশব্যাপী ইসলাম ও মুসলমানের সব ঐতিহ্য-সংস্কৃতি এবং গৌরবের চিহ্ন নানা বাহানায় নিশ্চিহ্ন করার যে ষড়যন্ত্র চলছে, তা সম্মিলিতভাবে মোকাবেলা করা হবে। তওহিদি জনতাকে সাথে নিয়ে এ কুচক্রীগোষ্ঠীর দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে। ওলি-আওয়ালিয়াদের নামে স্বাধীনতাবিরোধী অপবাদ দিয়ে তাদের নাম সড়ক, স্থাপনা, মসজিদ, মাদরাসা থেকে তুলে দেয়ার পাঁয়তারা করে কেউ এ দেশে টিকে থাকতে পারবে না।
গতকাল রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর আশরাফাবাদ নূরিয়া মাদরাসা মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় বক্তারা এ কথা বলেন। ইসলামী ঐতিহ্য সংরক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক হাফেজ মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জীরের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে আলোচনা করেন মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী, মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী, মাওলানা মাঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন, মাওলানা আবদুল মাজেদ আতহারী, মাওলানা মুসা বিন ইজহার, শায়খুল হাদিস মাওলানা আজিমুদ্দীন, মাওলানা মিনহাজ উদ্দিন খতিব চকবাজার শাহী মসজিদ, মাওলানা জাফর আহমাদ শাহতলী, মাওলানা ফায়সাল বিন আবুল কালাম, মাওলানা সাঈদুর রহমান, মাওলানা মাহবুবুর রহমান, মাওলানা আজীজুর রহমান হেলালী, মাওলানা বেলায়েত হেসেন আল ফিরুজী, মাওলানা সুলতান মুহিউদ্দিন, মাওলানা আকরাম হুসাইন প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, পাকবাহিনীর মুরগি সাপ্লাইয়ের ঠিকাদারেরা এখন মুক্তিযুদ্ধের সোল এজেন্ট সেজেছে। বিজ্ঞপ্তি।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.