দিনাজপুরে কথিত পীর খুনের ঘটনায় মুরিদ আটক

দিনাজপুর সংবাদদাতা

দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার দৌলা গ্রামে কথিত পীরসহ জোড়া খুনের ঘটনায় মূল ঘাতক পীরের মুরিদ সফিকুল ইসলাম বাবুকে (৪০) কুড়িগ্রাম থেকে আটক করেছে রংপুর র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র্যাব)-১৩ সদস্যরা। জোড়া খুনের ঘটনায় এখন পর্যন্ত অংশ নেয়া তিনজন আটক হলো।
গতকাল সোমবার সকালে কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলার জয়মনিরহাট বাজার এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক সফিকুল উপজেলার দৌলা গ্রামের আজিমুদ্দিনের ছেলে। র্যাব-১৩ এর এএসপি আব্দুল মান্নান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকালে জয়মনিরহাট বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে সফিকুলকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি নিজেকে মূল ঘাতক বলে স্বীকার করেছেন। এর আগে দিনাজপুরে ফরহাদ চৌধুরীসহ জোড়া খুনের ঘটনায় আটক হওয়া দুইজন গত শুক্রবার দিনাজপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করেন। ওই আটককৃত দুইজন কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার পাথরডুবি গ্রামের পীর আজিম উদ্দিনের ছেলে পীর এছাহাক আলী ও দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার দৌলা গ্রামের মৃত ফয়জুল হকের ছেলে ও কাদরিয়া মোহাম্মদিয়া দরবার শরিফের প্রধান খাদেম সাইদুর রহমান। এ নিয়ে জোড়া খুনের ঘটনায় অংশ নেয়া তিনজন গ্রেফতার হলো।
উল্লেখ্য, সোমবার রাত ৮টার দিকে বোচাগঞ্জ উপজেলার দৌলা নামক এলাকায় কথিত পীর ফরহাদ হোসেন চৌধুরী ও তার মুরিদ গৃহপরিচারিকা রূপালী বেগমকে গুলি ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়। ফরহাদ হোসেন চৌধুরী দিনাজপুর পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ও দিনাজপুর জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন।  

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.