আহত পীর হাফেজ শাহালম নঈমী
আহত পীর হাফেজ শাহালম নঈমী

ফটিকছড়িতে পীরকে ছুরিকাঘাত হামলাকারীকে গণপিটুনি

ফটিকছড়ি (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায় নামাজরত অবস্থায় এক পীরকে পেছন থেকে চুরিকাঘাত করা হয়েছে। এতে গুরুতর আহত ওই পীরকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উপজেলার পাইন্দং ইউনিয়নের আশরাফাবাদ দরবার শরিফে গতকাল সন্ধ্যায় মাগরিবের নামাজ আদায় করার সময় এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই পীরের নাম হাফেজ শাহালম নঈমী (৬০)।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পাইন্দং করবল্লাহ টিলায় অবস্থিত আশরাফাবাদ দরবার শরিফের সাজ্জাদানশিন হাফেজ শাহালম নঈমী (৬০) মাজারের মসজিদে মাগরিবের নামাজের ইমামতি করছিলেন। নামাজরত অবস্থায় পেছন থেকে এক যুবক তার পিঠে ছুরিকাঘাত করে। এ সময় মসজিদে থাকা লোকজন হামলাকারী যুবক ছালাউদ্দিনকে (২৭) আটক করে। খবরটি চার দিকে ছড়িয়ে পড়লে পীরের ভক্তরা সেখানে এসে ভিড় জামান। হামলাকারীকে গণপিটুনি দেয়া হয়েছে।
আহত পীরকে প্রথমে নাজিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পরে সেখান থেকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। খবর পেয়ে ফটিকছড়ি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যেতে চাইলে পীরের ভক্তদের বাধার সম্মুখীন হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আটক যুবককে জনতার হাত থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ওই যুবক একই ইউনিয়নের পাইন্দং গ্রামের মিয়াজি বাড়ির নুর মুহাম্মদের ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শী একাধিক ব্যক্তি জানান, হামলাকারীরা সংখ্যায় চারজন ছিল। বাকিরা পালিয়ে যায়। এ হত্যাচেষ্টার কারণ হিসেবে স্থানীয়দের ধারণা মাজারের জায়গা-জমির বিরোধের জের ধরে ঘটতে পারে।
ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ইউছুফ মিয়া বলেন, এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.