ছেলের হাতে ক্ষমতা অর্পণ করলেন লেবাননের দ্রুজ নেতা

মিডলইস্ট মনিটর

লেবাননের দ্রুজ সম্প্র্রদায়ের প্রধান নেতা ওয়ালিদ জুমলাত ছেলে তৈমুরের কাছে তার রাজনৈতিক কর্তৃত্ব হস্তান্তর করেছেন। এই ক্ষমতা হস্তান্তর দেশটির সম্প্রদায়িক সরকারের বংশগত রাজনৈতিক প্রভাবের বিষয় প্রকাশ পেয়েছে।
সংখ্যালঘু দ্রুজ সম্প্রদায়ের প্রধান ও রাজনৈতিক নেতা জুমলাত রোববার কাউফ পর্বতমালার মুখতারা শহরে সরাসরি টেলিভিশনে প্রচারিত এক সমাবেশে ছেলের কাঁধে ফিলিস্তিনির কোফিয়ে স্কার্ফ (ক্ষমতার প্রতীক স্বরূপ রুমাল) পরিয়ে দিয়ে তিনি তার ক্ষমতা হস্তান্তর সম্পন্ন করেন।
রাজনৈতিক ক্ষমতা হস্তান্তরের বিষয়টি লেবাননের গণমাধ্যম বেশ গুরুত্বের সাথে প্রচার করেছে। ক্ষমতা হস্তান্তরের পর জুমলাত তার ছেলের উদ্দেশে বলেছেন, ‘মাথা উচুঁ করে সামনে এগিয়ে চল এবং গর্বের সাথে তুমি তোমার দাদার উত্তরাধিকার রক্ষা করো।’ জুমলাতের বাবা কামাল জুমলাতের ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে হাজার হাজার সমর্থকদের সামনে এসব কথা বলেন।
কামাল জুমলাত সিরিয়ান শাসকদের হাতে নিহত হয়েছিলেন বলে মনে করা হয়। ওই হত্যাকাণ্ডের পর লেবানন গৃহযুদ্ধের প্রথম দিকে জুমলাত পারিবারিকভাবে রাজনৈতিক নেতৃত্বে চলে এসেছিলেন। ১৯৭৫ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত সংঘর্ষ চলাকালে দেশটিতে প্রভাব বিস্তারকারী গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গের মধ্যে তিনি ছিলেন অন্যতম।
এগার শতাব্দীর শুরুর দিকে মুসলিমদের একটা ছোট ফেরকা হিসেবে দ্রুজদের আবির্ভাব ঘটে। সময়ের সাথে সাথে লেবানন সরকারের সম্প্রদায়িক অবস্থায় গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে এই গোষ্ঠীটি। লেবাননের রাজনীতিতে জুমলাত প্রায়ই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন।
দেশটির সিরিয়াবিরোধী রাজনীতির নেতৃত্বে ছিলেন জুমলাত।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.