গৃহবধু হত্যার রহস্য উদঘাটন

মোঃ ফখরুল ইসলাম সাগর,দেবিদ্বার

কুমিল্লার দেবিদ্বার পৌরএলাকার ৫ সন্তানের জননী গৃহবধু হাজেরা বেগম (৪২) খুন হওয়ার ১৬ঘন্টার মধ্যেই হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ।
আসামী নিজ স্ত্রী কর্তৃক শারীরিক নির্যাতন, স্ত্রীর অশানীল আচার ব্যবহারের কারণে পিতৃ সম্পত্তি হতে বঞ্চিত হওয়া সহ বিভিন্ন ক্ষোভের কারনেই নিজ গৃহে ঘুমন্ত অবস্থায় স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা করেছে তার পাসন্ড স্বামী শাহআলম। সোমবার দুপুরে বিজ্ঞ ৪নং আমলী আদালতে হাজির করলে বিজ্ঞ ম্যাজিষ্ট্রেট বিপ্লব দেবনাথের এর নিকট ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দিতে নিজের স্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার করায় তাকে জেল হাজতে প্রেরন করেন।
দেবিদ্বার থানার এসআই সাইদুর রহমান ও এস আই মোর্শেদ আলম জানান, গতকাল গৃহবধুর লাশ উদ্ধারের পর সন্দেহ ভাবে নিহতের স্বামী শাহলমকে ব্যপক জিজ্ঞাসাবাদের পর এক পর্যায়ে থানায় হত্যার বর্ননা যে তার স্ত্রী তাকে প্রায় শারীরিক নির্যাতন করতো, এবং স্ত্রী হাজেরার আচার ব্যবহারের কারণে শাহআলম তার বাবা-ভাইদের সাথে সম্পর্ক বিনষ্ট হওয়ার কারনে পিতৃ সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত হওয়া সহ বিভিন্ন ক্ষোভের বশঃবর্তী হয়ে নিজ গৃহে ঘুমন্ত স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা করে লাশ গুমকরার লক্ষে ঘর থেকে বাহিরে লাশ ফেলে রাখে।
উল্লেখ্য, গত রোববার ভোর রাতে জেলার দেবিদ্বার পৌর এলাকার দক্ষিণ ভিংলাবাড়ি এলাকায় হাজেরা বেগম (৪২) নামের এক গৃহবধূকে শ^াসরোধ করে খুন করা হয়েছিল।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.