ঢাকা, শনিবার,১৮ নভেম্বর ২০১৭

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা

ক্ষমা চাইল ওয়াশিংটন

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১৮ মার্চ ২০১৭,শনিবার, ১০:০৮ | আপডেট: ১৮ মার্চ ২০১৭,শনিবার, ১০:১৩


প্রিন্ট
হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেনারেল ম্যাকমাস্টার

হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেনারেল ম্যাকমাস্টার

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় ব্রিটিশ গোয়েন্দা সংস্থাগুলো বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের টেলিফোনে আড়ি পেতেছিল বলে মিথ্যা অভিযোগ আনায় লন্ডনের কাছে ক্ষমা চেয়েছে ওয়াশিংটন।

হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেনারেল ম্যাকমাস্টার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা প্রধান মার্ক লিয়াল গ্রান্টকে টেলিফোন করে এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রেস সচিব শোন স্পাইসার ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে দাবি করেন, ২০১৬ সালের নির্বাচনের সময় তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার অনুরোধে ব্রিটিশ গোয়েন্দা সংস্থাগুলো ট্রাম্প টাওয়ারের টেলিফোনে আড়ি পেতেছিল।

স্পাইসারের বক্তব্যের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানায় লন্ডন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র মুখপাত্র জেমস স্লাক বলেন, এ ধরনের বক্তব্য ব্রিটেনের সর্বোচ্চ পর্যায়ে ক্ষোভ তৈরি করেছে। তিনি বলেন, “আমরা মার্কিন সরকার স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছি এ ধরনের অভিযোগ হাস্যকর এবং এর যেন পুনরাবৃত্তি না হয়। তারা আমাদের এ দাবির পুনরাবৃত্তি করবেন না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।”

শোন স্পাইসার যেদিন এ দাবি করেন সেদিনই মার্কিন সিনেটের গোয়েন্দা কমিটি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছিল, ২০১৬ সালের নির্বাচনের সময় ওবামা সরকারের পক্ষ থেকে ট্রাম্প টাওয়ারে আড়ি পাতার খবর সত্য নয়।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চলতি মাসের গোড়ার দিকে নিজের টুইটার পাতায় প্রকাশিত এক নোটে দাবি করেছিলেন, সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ট্রাম্প টাওয়ারে তার টেলিফোনে আড়ি পাতার নির্দেশ দিয়েছিলেন।

সূত্র : ওয়েবসাইট

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫