ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৩ মার্চ ২০১৭

শিক্ষা

ছাত্রলীগের ইতিবাচক সংবাদ বর্জন করবে ঢাবিসাস

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

১৭ মার্চ ২০১৭,শুক্রবার, ১৯:১২


প্রিন্ট

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের ন্যাক্কারজনক হামলায় সাংবাদিক ইমরান হোসেন আহত হওয়ার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় সংগঠনটির সব ইতিবাচক সংবাদ ও কর্মসূচি বর্জনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (ঢাবিসাস)। এই সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর থেকে বিজয় একাত্তর হল শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত না হওয়া পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে।

সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ফরহাদ উদ্দীনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ফররুখ মাহমুদের পরিচালনায় এক জরুরি সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সোমবার দিবাগত রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় একাত্তর হলের অর্ধশত কক্ষে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া ছাত্রলীগ দলীয় নেতা-কর্মীদের উঠিয়ে দেয়, প্রাধ্যক্ষের কার্যালয় ভাঙচুর করে, আবাসিক শিক্ষকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে ও বেশকিছু আবাসিক শিক্ষার্থীকে লাঞ্ছিত করে। ওই রাতে সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে বার্তা সংস্থা ইউএনবির ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ইমরান হোসেনের ওপর পরিকল্পিত হামলা চালায় সংগঠনটির ১০-১৫ জন নেতা-কর্মী। হামলায় সাংবাদিক ইমরান জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। হল ছাত্রলীগের সভাপতি ফকির রাসেল আহমেদ ও নয়ন হাওলাদারের নির্দেশেই এ হামলা হয়।

তারা আরও বলেন, এ ঘটনার প্রেক্ষিতে গত ১৫ মার্চে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি বিজয় একাত্তর হল শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত করার আহ্বান জানিয়ে ছাত্রলীগকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয়। কিন্তু নির্ধারিত সময় পার হলেও ছাত্রলীগ ওই আহ্বানে সাড়া দেয়নি। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলে সাংবাদিক মারধরের ঘটনায়ও ছাত্রলীগ কার্যকর কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। এ ধরনের প্রতিটি ঘটনায় প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের ছাত্রলীগ বানিয়ে ‘বহিষ্কার’ করে প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার চেষ্টা করা হয়েছে। এটি প্রকারান্তে অপরাধীদের প্রশ্রয় দেয়ার শামিল। ছাত্রলীগের এমন কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি সর্বসম্মতিক্রমে ছাত্রলীগের সকল ইতিবাচক সংবাদ ও কর্মসূচি বর্জনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

সভায় সাংবাদিক সমিতির সদস্যরা ঘটনায় জড়িতদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারেরও দাবি জানান। পাশাপাশি গণতান্ত্রিক এ দেশে সুশাসন নিশ্চিত করতে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনা বন্ধে সরকারকে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান। এ ধরনের ঘটনায় কোনো ধরনের শৈথিল্য প্রদর্শন দেশের জন্য নেতিবাচক ফলাফল বয়ে আনবে বলেও মত দেন তারা।

 

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
সকল সংবাদ

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫