পিরোজপুরে মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া

দেলোয়ার হোসাইন পিরোজপুরঃ

উপকূলীয় জেলা পিরোজপুরে হাত বাড়ালেই মাদকদ্রব্য পাওয়া যায়। স্কুল কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে বখাটে কিশোর যুবকসহ সব বয়সের মানুষ কোন না কোন মাদকদ্রব্য সেবন করছে। ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েছে শহর ,বন্দর, পাড়া ও মহল্লার বিভিন্ন বয়সের এক শ্রেণির অসৎ লোক। র‌্যাব , থানা পুলিশ , গোয়েন্দা পুলিশ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের লোকদের হাতে ধরা পড়ছে ব্যবসায়ী ও সেবনকারিরা। দিন যতই যাচ্ছে মাদক ব্যবসায়ীরা ততই বেপরোয়া হচ্ছে। গত ৬ মার্চ সোমবার সন্ধ্যায় মাদক ব্যবসা নিয়ে কোন্দলের জেরে খুন হয়েছে ভান্ডারিয়া উপজেলার গৌরিপুর ইউনিয়নের উত্তর পৈকখালী গ্রামের মদক ব্যবসায়ী জালাল হাওলাদার (৪৫)। জানাগেছে ব্যবসার টাকা ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে জালালের সাথে তার পাটনারদের সাথে কিছুদিন ধরে মনোমালিনন্য চলে আসছিল। সোমবার সন্ধ্যার কিছু পুর্বে তার দলীয় লোকেরা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জালালকে ডেকে বাড়ির পাশের একটি বাগানে নির্জণ স্থানে নিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। জালাল ভান্ডারিয়া উপজেলার পেশাদার এক মাদক ব্যবসায়ী ছিল। গত ২২ ফেব্রুয়ারি বুধবার রাতে পিরোজপুরের ডিবি পুলিশের এ এস আই মাঈনুদ্দিনকে কুপিয়েছে মাদক ব্যবসায়ীরা। শহরের ধুপপাশা এলায় ডিবি পুলিশের একটি দল মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারের জন্য গেলে সংঘবদ্ধ মাদক কারবারিরা ডিবি পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো দাও দিয়ে মাঈনুদ্দিনকে তারা কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। ৮ ফেব্রুয়ারি বুধবার জেলার নাজিরপুর উপজেলার বুইচাকাঠি গ্রামে দুপুর বেলায় মাদক ব্যবসায়ীরা জাতীয় পার্টি (এরশাদ) নেতা নিজাম হাওলাদারকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে পা ভেঙ্গে দিয়েছে। মালিখালী ইউনিয়ন মাদকমুক্ত করার জন্য গঠিত একটি কমিটির সদস্য বলে নিজাম হাওলাদার ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি। তিনি ঘটনার দিন দুপুরে বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল যোগে বাজারে যাওয়ার সময় ওই এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা পথ রোধ করে তার উপর হামলা চালায়। ভান্ডারিয়ার রাজপাশা গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী শামিম মৃধার নেতৃত্বে রয়েছে একটি চক্র । যারা উপকূলীয়াঞ্চলের বিভিন্ন পয়েন্টে ভারতীয় ফেনসিডিল , গাঁজা ও ইয়াবা ট্যাবলেটসহ নানান জাতের মাদকদ্রব্য বিক্রয় করছে। সম্প্রতি শামিম মৃধা ঝালকাঠী জেলার কাঁঠালিয়া উপজেলার বানাই বাজারে ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে আটক হয়ে ঝালকাঠী কারাগারে রয়েছে। শামিম আটক থাকলেও তার সহযোগিরা এখনো সক্রিয় রয়েছে বলে জানাগেছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.