ইদানীং কর্নিয়া

অভি মঈনুদ্দীন

শ্রোতাপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী কর্নিয়ার সঙ্গীতজীবনে এক অন্য রকম অধ্যায়ের শুভসূচনা হতে যাচ্ছে। ২০০৬ সালে যে কলেজ থেকে তিনি এইচএসসি পাস করেছিলেন সেই কলেজেরই প্রতিষ্ঠার এক যুগ পদার্পণের বিশেষ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করতে যাচ্ছেন তিনি।

আসছে ১৮ মার্চ রাজধানীর ফার্মগেটে অবস্থিত আইডিয়াল কমার্স কলেজের এক যুগ পদার্পণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে ধানমন্ডির উইমেন্স কমপ্লেক্সে। সেদিন দুপুরে সেখানে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন কর্নিয়া। টানা এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে কর্নিয়া সেখানে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন বলে জানান তিনি। তবে এ জন্য তিনি কোনো পারিশ্রমিকও নিচ্ছেন না। বিষয়টি কলেজ কর্তৃপক্ষকে বেশ গর্বিত করেছে।

কর্নিয়া বলেন, সত্যিই খুব ভালো লাগছে যে, আমি যে কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেছি সেই কলেজেরই এক যুগের অনুষ্ঠানে গান গাইতে পারছি। আমার শিল্পীজীবনের এটি একটি স্মরণীয় অধ্যায় হয়ে থাকবে। পাশাপাশি কলেজের চেয়ারম্যান ড. আবদুল হালিম পাটোয়ারী স্যার আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন তা আমি বেশ আন্তরিকতার সাথে পালন করছি। আশা করি খুব চমৎকার একটি অনুষ্ঠান হবে।

এ দিকে বর্তমানে স্টেজ শো নিয়েই যত ব্যস্ততা কর্নিয়ার। আজ রাজধানীতে একটি করপোরেট শোতে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন তিনি। ইউটিউবে দু’টি মিউজিক ভিডিও দেখা যায় কর্নিয়ার। একটি ‘হিরো’ ও অন্যটি ‘গাঙচিল’। হিরো গানটির সুর-সঙ্গীত করেছেন আরিফিন রুমী ও গাঙচিল গানটির সুর-সঙ্গীত করেছেন সেতু চৌধুরী। কর্নিয়া প্রথম প্লে-ব্যাক করেন তন্ময় তানসেন পরিচালিত রানআউট চলচ্চিত্রে। এরপর তিনি রাঙ্গামন, স্টোরি অব সামারাসহ আরো বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে প্লে-ব্যাক করেন।

উল্লেখ্য, কলেজের অনুষ্ঠানে কর্নিয়ার পর সঙ্গীত পরিবেশন করবেন আঁখি আলমগীর। আর তাই এ নিয়েও আনন্দিত কর্নিয়া।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.