ঢাকা, মঙ্গলবার,২৫ জুলাই ২০১৭

ফ্যাশন

দূর করুন ব্ল্যাকহেডস

ফাহমিদা জাবীন

০৬ মার্চ ২০১৭,সোমবার, ১৭:৪০


প্রিন্ট

সুন্দর ঝলমলে ত্বক কে না চায়। কিন্তু মুখের সৌন্দর্যকে সহজেই দৃষ্টিকটু করে তুলতে পারে ব্ল্যাকহেডসের উপস্থিতি। সাধারণত নাকের আশপাশে ব্ল্যাকহেডস বেশি দেখা যায়। ঘাম ও ধুলাবালু ব্ল্যাকহেডস সৃষ্টি হওয়ার অন্যতম কারণ। কোষের ভেতর ধুলাবালু জমে প্রথমে হোয়াইটহেডসে পরিণত হয়। এই জিনিসগুলো পরিষ্কার না করা হলে এগুলো আস্তে আস্তে ব্ল্যাকহেডসে পরিণত হয়। ঘরে বসেই কিভাবে ব্ল্যাকহেডস দূর করবেন রইল তারই কিছু পরামর্শ।

• ব্ল্যাকহেডস থেকে দূরে থাকার অন্যতম শর্ত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা। নিয়মিত ত্বক পরিচ্ছন্ন রাখলে ব্ল্যাকহেডস হওয়ার আশঙ্কা অনেকটাই কমে যায়।
• অনেকেই ত্বক পরিচর্যার অংশ হিসেবে মুখে গরম ভাপ নিয়ে থাকেন। গরম ভাপ নেয়ার পর কিংবা রোদে ঘেমে ঘরে ফেরার পর অবশ্যই বরফ দিয়ে নাক ও চোয়ালে কিছু সময় মালিশ করতে হবে। এতে কোষগুলো আবার সঙ্কুচিত হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যাবে।
• ব্ল্যাকহেডস তোলার জন্য প্রথমে কোনো লোশন বা ম্যাসাজ ক্রিম ও পেট্রলিয়াম জেলি একত্রে মিশিয়ে হালকা করে নাকে ম্যাসাজ করুন। পরে গরম পানিতে রুমাল ভিজিয়ে এর সাহায্যে চাপ দিয়ে ব্ল্যাকহেডসগুলো পরিষ্কার করে নিন।
• চালের গুঁড়ার সঙ্গে টকদই ও দুই-তিন ফোঁটা মধু মিশিয়ে স্ক্রাবার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন নাক- চোয়ালে। এতে ব্ল্যাকহেডস দূর হয় সহজেই।
• মধু ও সুজি একসাথে মিশিয়ে আঙুলের সাহায্যে ব্ল্যাকহেডস আক্রান্ত জায়গায় ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ম্যাসাজ করুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।
• ডিমের সাদা অংশ ও চিনি একসাথে মিশিয়ে ব্ল্যাকহেডসের ওপর কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করুন। এবার একটি পাতলা কাপড় নাকের ওপর রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে টেনে তুলে ফেলুন।
• তবে যাদের ব্ল্যাকহেডস শক্ত হয়ে বসে গেছে তারা কিছুক্ষণ গরম পানির ভাপ নিন মুখে। এরপর একটি কাঠির সাহায্যে ব্ল্যাকহেডসগুলোর পাশে চেপে বের করে নিন।
•এগুলো ছাড়াও বাজারে একধরনের ক্লিপ পাওয়া যায় যেগুলো শুধু ব্ল্যাকহেডস দূর করার কাজেই ব্যবহার করা হয়। এগুলো দিয়ে ব্ল্যাকহেডসের ওপর হালকা চাপ দিলেই বেরিয়ে আসবে অংশটি। সামান্য পরিচর্যায় আপনি দূর করতে পারেন সৌন্দর্যের এই সমস্যা।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫