ঢাকা, বৃহস্পতিবার,১৯ অক্টোবর ২০১৭

প্রকৃতি ও পরিবেশ

জেগে উঠছে এক ‘হারানো পৃথিবী’

নয়া দিগন্ত অনলাইন

০১ মার্চ ২০১৭,বুধবার, ১৭:০৫


প্রিন্ট

সময়ের পরত ঝেড়ে ফেলে আড়মোড়া ভাঙছে হারিয়ে যাওয়া এক দুনিয়া৷ বহু হাজার বছর আগে চাপা পড়ে গিয়েছিল সে পৃথিবী৷ তার উপর জমেছিল বরফের স্তর৷ কিন্তু বরফ গলতেই ধীরে ধীরে দেখা মিলছে এক অচেনা দুনিয়ার৷
সম্প্রতি বিজ্ঞানীদের মধ্যে সাড়া ফেলে সাইবেরিয়ায় জেগে উঠেছে এক মহাগহ্বর৷ স্থানীয় ইয়াকুতিয়ান জনগোষ্ঠির বিশ্বাস ‘বাটাগাইকা’ নামের মহাগহ্বরটি হচ্ছে পাতালে প্রবেশ করার রাস্তা৷ প্রায় এক কিলোমিটার চওড়া ও ২৮০ ফুট গভীর এই গহ্বরটি প্রতিবছর ৩৩ থেকে ৯৯ ফুট বাড়ছে৷ এর ফলে ভুগর্ভস্ত বরফ গলে বেরিয়ে আসছে প্রায় দুই লাখ বছর পুরনো প্রাণিজগতের নিদর্শন৷ ইতিমধ্যে, বাটাগাইকা গহ্বর থেকে পাওয়া গেছে প্রাগৈতিহাসিক প্রায় অবিকৃত ম্যামথ ও চার হাজার বছর পুরনো ঘোড়ার জীবাশ্ম৷

বৈজ্ঞানিকদের বিশ্বাস গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের ফলে ভূগর্ভে বরফ গলে যাওয়ায় তৈরি হয়েছে এই বিশাল গহ্বর৷ তার ফলে প্রকাশ্যে এসেছে তুষার যুগে চাপা পড়ে যাওয়া বহু প্রাগৈতিহাসিক প্রাণীর জীবাশ্ম৷ তারা আরো জানিয়েছেন যে, শেষবার প্রায় ১০,০০০ বছর আগে, তুষার যুগের শেষে সইবেরিয়াতে এরকম মহগহ্বরের সৃষ্টি হয়েছিল৷ আবহাওয়া বদল ও উষ্ণায়নের গবেষণায় ওই গহ্বর থেকে জরুরি তথ্য পাওয়া যাবে বলেও মনে করছেন তারা৷
তবে এ নিয়ে কিছুটা উদ্বেগও রয়েছে৷ সম্প্রতি রুশ বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এমন গহ্বর থেকে বহু বছর ধরে চাপা পড়ে থাকা স্মল পক্সের জীবাণু বেরিয়ে আসতে পারে৷

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫