ঢাকা, রবিবার,১৯ নভেম্বর ২০১৭

আবিষ্কার

যে বিছানায় থাকলে ভূমিকম্পে কিছুই হবে না

নয়া দিগন্ত অনলাইন

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭,রবিবার, ১৩:৫৩


প্রিন্ট

২০০৮ সালে চীনের সিচুয়ান প্রদেশের ভূমিকম্পে ৯০,০০০-এর বেশি মানুষ নিহত অথবা নিখোঁজ হন৷ তার পর থেকেই ভূমিকম্প-প্রতিরোধী বাড়িঘর আর আসবাবপত্র বাজারে আসতে শুরু করে৷
ওয়াং ওয়েনক্সি-র ডিজাইন করা ভূমিকম্পপ্রতিরোধী বিছানার পেটেন্ট নেয়া হয় ২০১০ সালে৷ তার পর থেকে তিনি নানা ধরনের ভূমিকম্প প্রতিরোধী বিছানা ডিজাইন করেছেন৷

অধিকাংশ ক্ষেত্রেই নিদ্রামগ্ন মানুষটি বিছানার দু'ধারের মাঝখানের ফাঁকটিতে পড়ে যান, ওপরের ঢাকনা বন্ধ হয়ে যায় – কিন্তু ভিতরে খাবার-দাবার, পানি ও অন্যান্য সরঞ্জাম রাখার জায়গা থাকে৷
ওয়াং-এর ভিডিও-তে যে দু'টি জিনিস দেখানো হয়নি, সে দু'টি হলো: ভূমিকম্পের পর ত্রাণকর্মীরা বাড়ির ধ্বংসস্তূপে এই বিছানা বা বাক্সটিকে খুঁজে পাবেন কী করে; দ্বিতীয়ত, বিছানা বা বাক্সের মালিকই বা তা থেকে বেরোবেন কী করে৷ তবে ঘুমের মধ্যে বাক্সের বাইরে হাত বা পা আছে বলে, সে হাত-পা ভাঙার সম্ভাবনা নেই – নিন্দুকরা যাই বলুন না কেন৷
খাঁচা বা ধাঁচা সুদ্ধু বিছানার ওজন আর দাম নিয়েও প্রশ্ন উঠতে পারে৷ কিন্তু গভীর রাতে ভূমিকম্প হলে, ছাদ থেকে চাঙড় ভেঙে পড়লে যে বিছানা জান বাঁচাতে পারে, তাকে যে একটু শক্ত-পোক্ত হতে হবে, সে তো জানাই কথা৷
ওয়াং ঠিক পথই ধরেছেন, তবে তাকে ও তার ভূমিকম্প-প্রতিরোধী বিছানাকে এখন সেই পথ ধরে আরো অনেকটা এগোতে হবে...৷
সূত্র : ডয়েচে ভেলে

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫