ঢাকা, বৃহস্পতিবার,১৭ আগস্ট ২০১৭

শেষের পাতা

আমার দেশের প্রেস খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধনে বক্তারা

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনতে ঐক্যবদ্ধ হোন

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭,শনিবার, ০০:০০


প্রিন্ট
পত্রিকার ছাপাখানা খুলে দেয়ার দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আমার দেশ পরিবারের মানববন্ধন : নয়া দিগন্ত

পত্রিকার ছাপাখানা খুলে দেয়ার দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আমার দেশ পরিবারের মানববন্ধন : নয়া দিগন্ত

দৈনিক আমার দেশ-এর ছাপাখানা খুলে দেয়ার দাবিতে ‘আমার দেশ পড়তে চাই, দেশের খবর জানতে চাই’ স্লেøাগান নিয়ে গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে আমার দেশ-এর কারানির্যাতিত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং লেখার স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনার জন্য দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে সব মিডিয়া কর্মীকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
মানববন্ধনে সূচনা বক্তব্য দেন, পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদ। আমার দেশ-এর স্পোর্টস এডিটর ও জাতীয় প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক ইলিয়াস খানের সঞ্চালনায় বক্তৃতা করেন : লেখক, কবি, কলামিস্ট ফরহাদ মজহার, বিএফইউজের সভাপতি শওকত মাহমুদ, সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, ইঞ্জিনিয়ারদের নেতা ইঞ্জিনিয়ার রিয়াজুল ইসলাম রিজু, বিএফইউজের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মোদাব্বের হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: শহিদুল ইসলাম, আমার দেশের বার্তা সম্পাদক জাহেদ চৌধুরী, কৃষিবিদ নেতা শামীমুর রহমান শামীম প্রমুখ।
মানববন্ধনে মাহমুদুর রহমান বলেন, এ সরকার আমার দেশ বন্ধ করেই ক্ষান্ত হয়নি, সবার লেখার অধিকার কেড়ে নিয়েছে। ২০০১-০৬ পর্যন্ত সাংবাদিকসমাজ ও মিডিয়া যে তীব্র ভাষায় সমালোচনা করতে পেরেছে, আজ তার ছিটেফোঁটাও সম্ভব হচ্ছে না। অনেক মিডিয়া বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। সম্পাদক ও সংবাদকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা, হয়রানি এমনকি অনেক সাংবাদিক হত্যার শিকার হয়েছেন। তিনি জনগণকে তাদের পছন্দের পত্রিকা আমার দেশ খুলে দেয়ার জন্য সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান। মাহমুদুর রহমান বলেন, আমি প্রথম দফায় এক বছর এবং দ্বিতীয় দফায় একটানা প্রায় চার বছর জেল খেটে জামিনে মুক্তি হয়েছি। জেল-জুলুম নির্যাতনে আমি ভয় পাই না। গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, মানুষের অধিকার, দেশের স্বার্থ ও গণতন্ত্র-মানবাধিকারের পক্ষে আমি আছি এবং থাকব।
ফরহাদ মজহার বলেন, লড়াই সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আজ মাহমুদুর রহমানকে সাথে নিয়ে আমরা রাজপথে দাঁড়িয়েছি। নাগরিক ও মানবাধিকার এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য সব মিডিয়াকে বৃহত্তর মৈত্রী গড়ে তুলতে হবে। আমার দেশ পড়তে চাই, ফ্যাসিবাদের ক্ষমা নেই।
শওকত মাহমুদ বলেন, আমার দেশ-এর অপরাধ পত্রিকাটি দেশের স্বার্থ, গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের পক্ষে এবং সরকারের অপকর্মের বিরুদ্ধে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করেছে। তিনি গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনার জন্য বিবেকবান জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান এবং অবিলম্বে আমার দেশ প্রেস খুলে দেয়ার দাবি জানান।
রুহুল আমিন গাজী বলেন, দেশের মানুষ আজ আমার দেশ পড়া থেকে বঞ্চিত। তারা আমার দেশ পড়তে চায় এবং দেশের প্রকৃত খবর জানতে চায়। তাই অবিলম্বে সরকারকে আমার দেশ প্রেস খুলে দেয়ার দাবি জানাই এবং একই সাথে মাহমুদুর রহমানসহ তার শত শত সহকর্মীকে পেশায় ফিরে যাওয়ার সুযোগ দেয়ার আহ্বান জানান।
জাহাঙ্গীর আলম প্রধান দৈনিক আমার দেশসহ সব বন্ধ মিডিয়া খুলে দেয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, অন্যথায় সাংবাদিকসমাজ বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলবে।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫