কারিগরি বোর্ডচালিত মেডিক্যাল টেকনোলজি কোর্স বন্ধের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

কারিগরি শিক্ষাবোর্ড পরিচালিত মেডিক্যাল টেকনোলজি কোর্স বন্ধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (বিএমটিএ)।

সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে আজ এক সংবাদ সম্মেলনে বিএমটিএ এই দাবি করে।

সরকারি চাকরিতে নিয়োগ শুরু, বেসরকারি চাকরিতে নীতিমালা এবং বেতন কাঠামোর প্রণয়নেরও দাবি সংগঠনটির।

মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টদের পেশাগত অধিকার নিশ্চিত করতে নবগঠিত বিএমটিএর আহ্বায়ক কমিটির সদস্যসচিব আশিকুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

তিনি বলেন, দেশের বেসরকারি ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ডেন্টাল সেন্টার ও চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টদের জন্য কোনো নির্দিষ্ট বেতন কাঠামো নেই। ফলে স্নাতক পাস করা অনেক টেকনোলজিস্টদের মাত্র আড়াই থেকে তিন হাজার টাকায় চাকরি করতে হচ্ছে। এ জন্য আলাদা করে বেসরকারি চাকরির নীতিমালা ও বেতনকাঠামো করা প্রয়োজন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএমটিএর সদস্য শহীদুল ইসলাম বলেন, তাদের হিসাবে দেশে ৭০ হাজার মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট আছেন। গত আট বছরে ডিপ্লোমা পাশ করা কোনো মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট সরকারি চাকরিতে নিয়োগ পাননি। ফলে অনেক টেকনোলজিস্ট বেকার অবস্থায় আছেন।

প্রস্তাবিত নতুন ডিপ্লোমা মেডিক্যাল এডুকেশন বোর্ড দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি জানান শহীদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী আদেশে কারিগরি শিক্ষাবোর্ড ২০০৬ সাল থেকে মেডিক্যাল টেকনোলজি কোর্স চালাচ্ছে। এটা পরিচালনা করার এখতিয়ার তাদের নেই। এটা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিচালনা করার কথা। এ ছাড়া মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগ থেকে আসা শিক্ষার্থীরাও কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে মেডিক্যাল টেকনোলজি কোর্স করতে পারছে। অথচ, চিকিৎসাসেবার এই বিষয়টি শুধু বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.