ঢাকা, মঙ্গলবার,২১ নভেম্বর ২০১৭

কূটনীতি

বিজিবি-বিএসএফ মহাপরিচালক পর্যায়ে সীমান্ত সম্মেলন কাল শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭,শুক্রবার, ২০:৪৬


প্রিন্ট
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এবং ভারতের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ) এর মধ্যে মহাপরিচালক পর্যায়ে সীমান্ত সম্মেলন আগামীকাল শনিবার শুরু হবে। চলবে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

সীমান্ত সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক বৈঠক আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় রাজধানীর পিলখানাস্থ বিজিবি সদর দফতরের সম্মেলন কক্ষে শুরু হবে।

সম্মেলনে যোগদানের উদ্দেশে বিএসএফ মহাপরিচালক কে কে শর্মা, আইপিএস এর নেতৃত্বে ১৯ সদস্যের ভারতীয় প্রতিনিধিদল ১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা এসে পৌঁছাবে। প্রতিনিধিদলে বিএসএফ সদর দফতরের ঊর্ধতন কর্মকর্তা, ফ্রন্টিয়ার আইজি, ভারত সরকারের স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ অন্তর্ভূক্ত রয়েছেন।

সম্মেলনে বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন, এনডিসি, পিএসসি-এর নেতৃত্বে ২৮ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল অংশ নেবে।

বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলে বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালকবৃন্দ, বিজিবি সদর দফতরের সংশ্লিষ্ট স্টাফ অফিসারবৃন্দ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, যৌথ নদী কমিশন, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, সার্ভে অব বাংলাদেশ এবং ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ প্রতিনিধিত্ব করবেন। একই সাথে সীমান্ত সম্মেলন উপলক্ষে ভারতের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ) পরিচালিত বিএসএফ ওয়াইভস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের ছয় সদস্যের প্রতিনিধিদল বিজিবি পরিচালিত সীমান্ত পরিবার কল্যাণ সমিতির বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পরিদর্শন করবেন।

সীমান্ত সম্মেলন উপলক্ষে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ৭টায় রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ জাতীয় বাস্কেটবল জিমনেশিয়ামে বিজিবি-বিএসএফ প্রীতি বাস্কেটবল ম্যাচের আয়োজন করা হয়েছে। ম্যাচে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়, এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া বিজিবি মহাপরিচালক ও বিএসএফ মহাপরিচালকসহ উভয় দেশের প্রতিনিধিদল প্রীতি বাস্কেটবল ম্যাচ উপভোগ করবেন।

এবারের সম্মেলনের আলোচ্য বিষয়ের মধ্যে রয়েছে সীমান্ত এলাকায় নিরস্ত্র বাংলাদেশী নাগরিকদের গুলি/হত্যা/আহত করা, বাংলাদেশী নাগরিকদের অপহরণ/আটক, অস্ত্র ও গোলা-বারুদ পাচার, সীমান্তের অপর প্রান্ত থেকে বাংলাদেশে ফেন্সিসিডিল, মদ, গাঁজা, হেরোইন এবং ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ও নেশাজাতীয় দ্রব্যের চোরাচালান বন্ধ, অবৈধভাবে আন্তর্জাতিক সীমান্ত অতিক্রম, আন্তর্জাতিক সীমান্তের ১৫০ গজের মধ্যে উন্নয়নমূলক নির্মাণ কাজ, আখাউড়া আইসিপির ভারতীয় অংশে ইটিপি (এফ্লুয়েন্ট ট্রিটমেন্ট প্লান্ট) স্থাপন, উভয় দেশের সীমান্তে নদীর তীর সংরক্ষণ কাজে সহায়তা, চোরাচালানী ও অপরাধীদের বিষয়ে তথ্য বিনিময় এবং উভয় বাহিনীর মধ্যে পারস্পরিক আস্থা বৃদ্ধির উপায় নিয়ে সম্মেলনে আলোচনা হবে। বৈঠক শেষে সম্মেলনের যৌথ দলিল স্বাক্ষরিত হবে।

সীমান্ত সম্মেলন উপলক্ষে পারস্পরিক সুসম্পর্ক জোরদার ও সৌহার্দ বৃদ্ধির অংশ হিসেবে ভারতীয় প্রতিনিধিদল দেশের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন করবেন এবং আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখ প্রতিনিধি দল ঢাকা ত্যাগ করবেন।

 

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫