পুলিশী হয়রানি বন্ধের দাবিতে তথ্যমন্ত্রীকে হকার নেতাদের স্মারকলিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিকল্প ব্যবস্থা না করে উচ্ছেদ বন্ধ এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, পুলিশী হয়রানি বন্ধের দাবি জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর কাছে হকার নেতারা স্মারকলিপি দিয়েছেন।

হকার্স ইউনিয়ন ও বাংলাদেশ হকার সমন্বয় পরিষদের নেতৃবৃন্দ আজ বৃহস্পতিবার তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর কাছে স্মারকলিপি প্রদান ও মতবিনিময় করেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, বাংরাদেশের মতো একটি জনবহুল দেশে বেকারত্ব বড় চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জ সরকারের একার পক্ষে সমাধান সম্ভব নয়। তাই হকাররা স্বল্প পুঁজি দিয়ে ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টি করছে। হকাররা স্বল্প পুঁজি দিয়ে বেকারত্ব ও দরিদ্র দূর করণে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করছে। তারা কেবলমাত্র বেকারত্ব কিংবা দারিদ্র দূরীকরণ করছেন না তারা দেশীয় পুঁজি ও শিল্পের সেবা করছে। কাজেই এই শ্রমগোষ্ঠী দেশের বোঝা নন, তারা দেশের সম্পদ। এদের লালন প্রতিপালন করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব। এই জনগোষ্ঠীকে উচ্ছেদ নয়, প্রতিপালন করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানানো হয় স্মারকলিপিতে।

তারা বলেন, হকারদের এর আগেও অনেকবার উচ্ছেদ করা হয়েছে কিন্তু সমস্যার সমাধান হয়নি। তাই দাবি করছি হকার উচ্ছেদ নয়, স্থায়ী পুনর্বাসন করুন। হকার পুনর্বাসনের বিষয়ে অনেক দেশে আইন ও নীতিমালা আছে। তারা উচ্ছেদের নামে প্রতিদিন সিটি কর্পোরেশন সাথে পুলিশ ও অন্যান্য বাহিনী নিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর, মালামাল নষ্ট ও লুটপাট চালাচ্ছে। হাজার হাজার স্বল্প পুঁজির হকার মালামাল হারিয়ে, রুটি রুজির জায়গা থেকে বিতাড়িত হয়েছে বলে স্মারকলিপিতে উল্লেখ্য করেন।

স্মারকলিপি পাঠ করেন হকার্স ইউনিয়নের উপদেষ্টা সেকেন্দার হায়াৎ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, হকার নেতা আবুল হোসাইন, কামাল সিদ্দিকী, হারুন অর রশীদ, হযরত আলী, আরিফ চৌধুরী, সরদার খোরশেদ, শফিকুর রহমান বাবুল, জসীম উদ্দিন, গোলাপ হোসেন, সাইজুদ্দিন প্রমুখ।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.