ঢাকা, মঙ্গলবার,১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭

গবেষণা

নিউমোনিয়া প্রতিরোধে আসছে স্মার্ট জ্যাকেট

নয়া দিগন্ত অনলাইন

২৮ জানুয়ারি ২০১৭,শনিবার, ১৪:১০


প্রিন্ট

অনেক দিন ধরেই গবেষকরা নিউমোনিয়া রোগ থেকে মানবজাতিকে রক্ষার উপায় খুঁজছেন। অবশেষে এ প্রচেষ্টায় কিছুটা সাফল্য অর্জন করেছেন উগান্ডার একদল প্রকৌশলী। তারা এমন একটি স্মার্ট জ্যাকেট উদ্ভাবন করেছেন, যা একজন ডাক্তারের চেয়ে দ্রুত নিউমোনিয়া রোগ শনাক্ত করতে সক্ষম। তাদের এ উদ্ভাবনকে নিউমোনিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে মানবজাতির জন্য নতুন আশার আলো হিসেবে দেখা হচ্ছে।
২৬ বছর বয়সী টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ার কবুরঙ্গের মাথায় প্রথম আসে তার অসুস্থ দাদীকে নিয়ে হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ঘুরেছেন। কোথাও সঠিকভাবে রোগ ধরা পড়ছিল না। শেষমেশ নিউমোনিয়া ধরা পড়ে তার দাদীর। এ সমস্যার বিষয়টিই আমাকে নতুন কিছু তৈরি করতে উদ্বুদ্ধ করে। আমি এমন একটি স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থার কথা চিন্তা করলাম, যা তার স্বাস্থ্যের খোঁজ রাখবে।
কবুরঙ্গ তার ভাবনা বন্ধু ব্রায়ান টুরিয়াবাগের সাথে শেয়ার করলেন। একদল ডাক্তারের সাথে মিলে তারা তৈরি করলেন এমন একটি যন্ত্র, যা একটি বায়োমেডিক্যাল স্মার্ট জ্যাকেট ও একটি মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের সমন্বয়ে তৈরি। এ যন্ত্রটিই নিউমোনিয়া শনাক্ত করবে বলে তারা দাবি করেছেন। এর নাম দেয়া হয়েছে মামা-অপে যার অর্থ মায়ের আশা। এটি ব্যবহার খুবই সহজ। স্বাস্থ্যকর্মীরা কেবল শিশুদের গায়ে জ্যাকেটটি জড়িয়ে দেবেন। এরপর যন্ত্রটির সেন্সরগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফুসফুসের সাউন্ড প্যাটার্ন, তাপমাত্রা ও শ্বাস-প্রশ্বাসের হার পরিমাপ করবে। এরপর ব্লুটুথের মাধ্যমে এ তথ্য চলে যাবে মোবাইল ফোনে। এরপর ফোনটি আগে থেকেই সংরক্ষিত তথ্যের সাথে নতুন তথ্য মিলিয়ে দেখবে ও এর ওপর ভিত্তি করে নিউমোনিয়া কোন পর্যায়ে রয়েছে, তা জানিয়ে দেবে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫