ঢাকা, সোমবার,০১ মে ২০১৭

উপমহাদেশ

ভিয়েতনামকে ভারত ক্ষেপণাস্ত্র দিলে গুটিয়ে থাকবে না চীন

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১২ জানুয়ারি ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ১৪:৫২


প্রিন্ট

ফের ভারতকে হুঁশিয়ারি দিল চীন। ফের সেই শাসক দল নিয়ন্ত্রিত মিডিয়াকে হাতিয়ার করে হুঁশিয়ারি। ভিয়েতনামকে যদি ভারত ‘আকাশ’ ক্ষেপণাস্ত্র দেয়, চীন চুপ করে বসে থাকবে না— কমিউনিস্ট পার্টি নিয়ন্ত্রিত সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমসে এমনই সতর্কবার্তা উচ্চারিত হয়েছে ভারতের প্রতি। বেইজিং-এর পরামর্শ, ভিয়েতনামের সঙ্গে ভারত সহযোগিতা বাড়াতে চাইলে শান্তির লক্ষ্য নিয়ে বাড়াক, অন্য কোনো দেশকে চাপে ফেলার লক্ষ্য নিয়ে নয়।
আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র এই মুহূর্তে ভারতের আকাশসীমা প্রতিরক্ষাব্যবস্থার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এটি শুধু একটি ক্ষেপণাস্ত্র নয়, এটি এখন একটি পুরোদস্তুর আকাশসীমা প্রতিরক্ষাব্যবস্থা। প্রতিপক্ষের ক্ষেপণাস্ত্র-সহ আকাশ পথে ধেয়ে আসা অনেক বড়সড় আক্রমণকেই রুখে দিতে সক্ষম আকাশ। ভারত এ বার ভিয়েতনামকে সেই ক্ষেপণাস্ত্র দেয়ার তোড়জোড় শুরু করেছে।
ভিয়েতনামের সঙ্গে চীনের সীমান্ত বিরোধ সুবিদিত। দক্ষিণ চীন সাগরের কিছু দ্বীপের দখল নিয়েও চীন-ভিয়েতনামে তীব্র দ্বন্দ্ব রয়েছে। এ হেন ভিয়েতনামের সঙ্গে ভারতের ঘনিষ্ঠতা বৃদ্ধিকে চীন কোনো দিনই ভালো চোখে দেখে না। ভারত-ভিয়েতনাম মৈত্রীকে বেইজিং বহু বারই কটাক্ষ করেছে। এ বার ভারত ভিয়েতনামকে উন্নত মানের আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহের সিদ্ধান্ত নেয়ায় চীন স্বাভাবিক ভাবেই স্থির থাকতে পারেনি। চীনের শাসক দল তথা সরকার নিয়ন্ত্রিত সংবাদপত্রের সম্পাদকীয় প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, ‘‘ভারত সরকার যদি সত্যিই কোনো রণকৌশলগত কারণে বা চিনের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিতে ভিয়েতনামের সঙ্গে সামরিক সম্পর্ক বাড়ানোর চেষ্টা করে, তা হলে চীন কিন্তু হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না। ভারত-ভিয়েতনাম সামরিক সম্পর্কের বিষয়ে চীনা সংবাদপত্রের মন্তব্য, ‘‘এই ধরনের সম্পর্ক আঞ্চলিক শান্তি এবং স্থিতিশীলতার লক্ষ্যে গড়ে তোলা উচিত, অন্যদের সমস্যা এবং উদ্বেগ বাড়িয়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে নয়।’’
চীনা সংবাদপত্রে ভারতের প্রতি হুঁশিয়ারি এই প্রথম নয়। ভারতের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক এবং সামরিক পদক্ষেপ নিয়েই চীনের এই সংবাদপত্রে বিরূপ মন্তব্য দেখা যায়। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশারদদের মতে, ভারতের বিভিন্ন পদক্ষেপ যথেষ্ট অস্বস্তি বোধ করে বলেই চীন বার বার এ ভাবে সংবাদপত্রের মাধ্যমে হুঁশিয়ারি দেয়ার পথ নেয়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫