ঢাকা, সোমবার,২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

প্রথম পাতা

খালেদা জিয়ার হাতে ৮০০ নেতার নাম

ঢাকা মহানগর বিএনপির কমিটি

মঈন উদ্দিন খান

১২ জানুয়ারি ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

মহানগর বিএনপিকে শক্তিশালী করতে নতুন নেতৃত্ব বাছাই করছেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। উত্তর ও দণি দুই ভাগে নগরীকে বিভক্ত করে নেতা নির্বাচনের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। পৃথক তিনটি তালিকা করে মহানগরীর ৪৯টি থানা কমিটির জন্য প্রায় ৮০০ নেতার নাম খালেদা জিয়ার কাছে জমা দেয়া হয়েছে। নতুন ও ত্যাগীদের প্রাধান্য দিয়ে তালিকা চূড়ান্ত করা হচ্ছে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।
দল গোছানোর এ প্রক্রিয়ার সাথে জড়িত বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু নয়া দিগন্তকে বলেন, সাংগঠনিকভাবে ঢাকা মহানগরকে চাঙ্গা করার কাজ ইতোমধ্যে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। একাধিক তালিকা দলের চেয়ারপারসনের কাছে জমা দেয়া হয়েছে। ঢাকা মহানগর বিএনপিকে দুই ভাগ করে কমিটি ঘোষণা করা হবে। বিএনপির হাইকমান্ড আন্দোলনে ঢাকা মহানগরকে আর নিষ্ক্রিয় দেখতে চায় না।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপারসনের নির্দেশনা অনুযায়ী কয়েক মাস ধরেই ঢাকা মহানগর কমিটি গঠনের কাজ করছেন দলের সিনিয়র এবং মহানগরের শীর্ষ নেতারা। তারা কেন্দ্রীয় কমিটির পাশাপাশি সবগুলো থানা কমিটির দু’টি খসড়া তালিকা তৈরি করে চেয়ারপারসনের কাছে জমা দিয়েছেন। সম্প্রতি আরো একটি তালিকা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।
নতুন এসব তালিকা অনুযায়ী ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কেন্দ্রীয়পর্যায়ে সুপার ফাইভ কমিটি দেয়া হবে। ঢাকা মহানগর দক্ষিণের তালিকায় আছেনÑ কাজী আবুল বাশার, ইউনুস মৃধা, হারুন অর রশিদ, নবী উল্লাহ নবী, তানভীর আহমেদ রবীন, আব্দুল লতিফ, মকবুল ইসলাম টিপু, হাজী আ ন ম সাইফুল ইসলাম, বাদল সর্দার, আবু মোতালেব, মো: ফরিদ উদ্দিন, লতিফুল্লাহ জাফরু, আকবর হোসেন ভ্ইুয়া নান্টু ও মোশারফ হোসেন খোকন। অন্য দিকে ঢাকা মহানগর উত্তরের তালিকায় আছেন এম এ কাইয়ুম, তাবিথ আউয়াল, আব্দুল আলীম নকী, আহসান উল্লাহ হাসান, মো: আনোয়ারুজ্জামান আনোয়ার, মুন্সী বজলুল বসিত আঞ্জু, আতিকুল ইসলাম মতিন, এ কে এম মোয়াজ্জেম হোসেন, অ্যাডভোকেট খন্দকার জিল্লুর রহমান, রবিউল আউয়াল এবং এম কফিল উদ্দিন আহমেদের নাম। এসব নেতার মধ্য থেকে উত্তর ও দেিণর গুরুত্বপূর্ণ পদগুলো ঠিক করা হবে বলে জানা গেছে। তবে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালামকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণে এবং আবুল খায়ের ভূঁইয়াকে উত্তরের নেতৃত্ব দেয়ার কথাও বলছেন কেউ কেউ।
১১টি থানায় কোনো কমিটি নেই
মহানগরীর ৪৯ থানার মধ্যে ১১টি থানায় এখনো পর্যন্ত কোনো কমিটি নেই। কেন্দ্র থানায় থানায় সম্ভাব্য নেতাদের তালিকা তৈরি করেছে। এদের মধ্যে রয়েছেন ওয়ারী থানায় লিয়াকত আলী, তারিক হোসেন, মোজাম্মেল হক মুক্তা, অ্যাডভোকেট মাহফুজুর রহমান মনা, মো: ইবরাহীম, সাব্বির আহম্মেদ আরেফ, দেওয়ান আব্দুল হাই, গোলাম মোস্তফা সেলিম ও আমির হোসেন। বংশাল থানায় লতিফ উল্লাহ জাফরু, তাজউদ্দিন তাইজু, আরিফুর রহমান নাদিম, মো: মোহন, ইয়াকুব সরকার, মাহাবুবুর রহমান, আফাজ উদ্দিন মাস্টার, হাজী সিরাজ ও মো: আদিল। মুগদা থানায় আলমাস হোসেন চেয়ারম্যান, শেখ মো: আলী চায়না, শামসুল হুদা কাজল, মো: শাহাজাহান, মুক্তার হোসেন, কফিল উদ্দিন, নূরুল হুদা, দিপু চৌধুরী, জিয়াউল হক রতন ও মাহাবুবুর রহমান টিপু। বনানী থানায় সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, হবিউল্লাহ হবি, রেজাউল করিম রাজা, আবুল কালাম আজাদ, মিজানুর রহমান বাচ্চু, এমদাদুল হক সোহাগ, ডা. কাইয়ুম ও শহিদুল ইসলাম হিরু। শাহ্ আলী থানায় মোশাররফ হোসেন মিশু, ফেরদৌসী আহম্মেদ মিষ্টি, সেলিম দেওয়ান গিয়াস, কায়সার আহম্মেদ পাপ্পু, গাজী রুহুল কুদ্দুস, শেখ মোহাম্মদ সাইদুল হক, ডা. আনিসুর রহমান মিল্টন সেলিম দেওয়ান গিয়াস ও ছোট মিজান। দারুস সালাম থানায় হাজী আবদুর রহমান, মাসুদ খান, ইকবাল হোসেন চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার আবদুস সামাদ, ডা. মো: ইয়াসিন, আলমগীর মোহাম্মদ কামাল, আরিফুর রহমান মৃধা, আবু সায়েম মণ্ডল, মো: শুভ্র ও আইয়ুব আলী। রূপনগর থানায় শাহ আলম মোল্লাকে সভাপতি এবং শেখ হাবিবুর রহমান হাবিবকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি গঠনের একটি প্রস্তাব রয়েছে। তবে তালিকায় আরো আছেন আব্দুল আওয়াল, অ্যাডভোকেট আমজাদ হোসেন মোল্লা, ইঞ্জিনিয়ার মুজিবুল হক, বুলবুল পাটোয়ারী, মো: হেলাল উদ্দিন আহমেদ চপল, বেল্লাল হোসেন, আশরাফুল ইসলাম ও আলী আহমেদ রাজু। শিল্পাঞ্চল থানায় সাবেক কাউন্সিলর রুহুল আমিন ভূঁইয়া জাহাঙ্গীর, মাহমুদুল আলম মন্টু, মিজানুর রহমান সারোয়ার, আইনুল ইসলাম চঞ্চল, গোলাম কিবরিয়া কিরণ, মো: শাহ আলম, জাকির খান, নুরুল হুদা নুরু ও হুমায়ুন কবির। শেরেবাংলা নগর থানায় আনোয়ারুজ্জামান আনোয়ার, সিরাজুল ইসলাম, মো: শাহ আলম, আফতাব উদ্দিন জসিম, ফখরুল ইসলাম রবিন, মোতাহার হোসেন, মোহাম্মদ আলী, আসাদুজ্জামান টুটুল, হাজী আবুল হাসেম ও আতিকুর রহমান অপু। যাত্রাবাড়ী থানায় কাউন্সিলর বাদল সর্দার, জুম্মন মিয়া চেয়ারম্যান, মো: আলমগীর হোসেন, হাজী মামুন সরদার, আতিক রহমান আতিক, ইসমাইল ভূঁইয়া তুহিন, সানাউল্লাহ মিয়া, শেখ মতিউর রহমান ও সামসুল আলম বাবলা।
থানাগুলোর নেতৃত্বে যারা আসছেন
মহানগরীর গুরুত্বপূর্ণ থানাগুলোর নেতৃত্বের জন্য যাদের বাছাই করা হয়েছে, তাদের মধ্যে রয়েছেনÑ শ্যামপুর থানায় আনম সাইফুল ইসলাম, মোজাম্মেল হোসেন, মাহাবুব মওলা হিমেল, তোফায়েল আহমেদ, মজিবুর রহমান খান, মো: শাহনেওয়াজ ও ইমতিয়াজ আহমেদ টিপু। খিলগাঁও থানায় আলহাজ মো: ইউনুস মৃধা, অ্যাডভোকেট ফারুকুল ইসলাম, মোয়াজ্জেম হোসেন খান, জামাল উদ্দিন এম জামান, সাজ্জাদ হোসেন, এলিম হোসেন ভূঁইয়া, হাজী আজমত আলী কুনু, মামুনুর রশিদ মামুন, ফেরদৌস আহমদ, মো: সুমন ভুইয়া ও বেলায়েত হোসেন। রমনা থানার আংশিক তালিকায় আছেন আরিফুল ইসলাম, শেখ আমির হোসেন, সোহরাব আলী ও তোফাজ্জল হোসেন। কদমতলী থানায় মীর হোসেন মীরু, তানভীর আহমেদ রবিন, হাজী সাইফুল, আমীর মোল্লা, হাজী মো: রাশেদ বাদশা ও তরিকুল ইসলাম পলাশ। ডেমরা থানায় জয়নাল আবেদীন রতন (চেয়ারম্যান), আকবর হোসেন নান্টু, হাজী আবুল হাসেম, হযরত আলী, আবদুল হাই বিপ্লব, কবির হোসেন, মাসুম বিল্লাহ খোকন, সাবেদ আলী মেম্বার, তৈয়ব উল্লাহ মেম্বার, সেলিম রেজা, মফিজুর রহমান, সোহেল চৌধুরী, ইউসুফ নবী, মাসুম মিয়া, সামসুল হক নিলু, মো: নান্টু মুন্সী ও মো: আনিসুজ্জামান। সূত্রাপুর থানায় মো: ফরিদ উদ্দিন, এম এ শাহেদ মন্টু, আব্দুস সাত্তার, নুরুল ইসলাম সেন্টু, মজিবুর রহমান আনু, অ্যাডভোকেট ফয়েজ, গোলাম হায়দার মুকুট ও আনভির আহম্মেদ। গেন্ডারিয়া থানায় কাউন্সিলর মকবুল ইসলাম টিপু, তারেক জামাল, কাউন্সিলর আব্দুল কাদির, সাঈদুর রহমান মন্টু, হাজী মো: ওয়াসেক বিল্লাহ, মকসুদ আহমেদ চৌধুরী, ঢালি মামুনুর রশিদ অপু, আমির উদ্দিন মোল্লা ও ওমর নবী বাবু। লালবাগ থানায় নাসিমা আক্তার কল্পনা, মোশারফ হোসেন খোকন, হাজী আলতাফ হোসেন, মজিবুর রহমান মঞ্জু, মীর আশরাফ আলি আজম, শাহিদা মোর্শেদ, সাঈদ হোসেন সোহেল, মো: সুইট ও হাফেজ খোকন। কামরাঙ্গীর চর থানায় হাজী মোহাম্মদ মনির হোসেন, হাজী রফিকুল ইসলাম, হাজী দেলোয়ার হোসেন, হাজী জহিরুল হক, মো: নাঈম, আবুল কালাম আজাদ, আওলাদ হোসেন ও হাজী আব্দুর রশিদ। হাজারীবাগ থানায় আছেন মো: মজিবুর রহমান মঞ্জু, সাইফুল হক রিন্টু, মো: রফিকুল ইসলাম, মো: আব্দুল আজিজ, শেখ মো: ফয়েজউল্লাহ ও মো: মানিক।
শাহবাগ থানায় এম এ হান্নান, সাইদুর রহমান সাইদ, জাহিদ হোসেন নোয়াব, শামসুল আলম চিনু, রফিকুল ইসলাম স্বপন, জাকির হোসেন মিন্টু, মো: মোশারফ হোসেন, আবুল আহসান ননী তালুকদার ও রাইসুল ইসলাম চন্দন। নিউমার্কেট থানায় আছেন কে এম জুবায়ের এজাজ, রেজাউল ইসলাম মিলন, আবু জাফর সন্তোষ, জাহাঙ্গীর হোসেন পাটোয়ারী ও শাহ আলম নান্টু। কলাবাগান থানায় সিরাজুল ইসলাম, সাইদুর রহমান সাঈদ, সাদেকুর রহমান টুটুল, গোলাম কিবরিয়া লাকী, আশরাফুল আলম, মেজবাহ উদ্দিন মনির ও মো: আলাউদ্দিন। পল্টন থানার তালিকায় থাকা নেতাদের মধ্যে রয়েছেন আনভির আদেল খান বাবু, লোকমান হোসেন ফকির, সেকান্দার আলী, এস এম আব্বাস, হাসিবুর রহমান শাকিল ও ফিরোজ আলম পাটোয়ারী। মতিঝিল থানায় আছেন হারুন আর রশিদ, মকবুল আহমেদ আকন্দ, আবু ইকবাল, ইসমাইল হোসেন, আনোয়ার হোসেন আনু, আলমগীর কবির ও আলাউদ্দিন আলাই। সবুজবাগ থানায় আছেন মো: গোলাম হোসেন, মো: হামিদুল হক, মো: মোস্তাফিজুর রহমান হিরু, আশরাফুল রহিম, হামিদুল হক, মনির হোসেন, বদিউজ্জামান বদি, আকতার হোসেন চেয়ারম্যান, মো: দুলাল ও মো: মনির হোসেন।
উত্তরার বেশ কয়েকটি থানা কমিটির চূড়ান্ত তালিকার খসড়া প্রস্তুত করা হয়েছে। উত্তরা পূর্ব থানায় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আছেন হেলাল উদ্দিন তালুকদার ও সালাম সরকার। হায়দার কবির মিথুন, এস আই টুটুল অথবা শাহ আলম সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ পেতে পারেন। উত্তরা পশ্চিম থানায় সভাপতি পদে প্রস্তাব করা হয়েছে আবদুুস ছালাম ও লিটন চেয়ারম্যানকে এবং সাধারণ সম্পাদক পদে আফাজ উদ্দিন ও মাশিউর রহমান বাবুকে। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে প্রস্তাব করা হয়েছে মোস্তফা কামাল হৃদয়ের নাম। তুরাগ থানায় সভাপতি পদে হাজী মোস্তফা জামান মেম্বার এবং সাধারণ সম্পাদক পদে আমান উল্লাহ মেম্বারের নাম একটি তালিকায় প্রস্তাব করা হয়েছে। অন্য একটি তালিকায় আছেন আতিকুর রহমান আতিক, আবদুল বাতেন, আবুল হোসেন খান ও হারুন অর রশিদ খোকন। বিমানবন্দর থানার সভাপতির পদে আছেন মোস্তাফিজুর রহমান সেগুন ও নাছির উদ্দিন এবং সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য আছেন আলাউদ্দিন সরকার টিপু। দক্ষিণখান থানা সভাপতি পদে একটি তালিকায় আছেন ইসমাইল হোসেন ও আলী আকবর। আর সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছে নাজিমুদ্দিন দেওয়ানের নাম। অন্য একটি তালিকায় আছেন আলী আকবর আলী, মো: শাহজালাল, আমিরুল ইসলাম বাবলু ও গিয়াস উদ্দিন। উত্তরখান থানায় মো: মমতাজ, মৃধা, আহসান হাবীব মোল্লা, জাহাঙ্গীর বেপারি, মো: মোতালেব, সালেহ মেম্বার, নাসিমুল ইসলাম নাসিম, নুরুজ্জামান নুরু, রফিকুল ইসলাম (মুকুল) ও অ্যাডভোকেট কিরণ। খিলক্ষেত থানায় শাহিনুর আলম মারফত, আখতার হোসেন, হাজী এস এম ফজলুল হক, ফরিদ উদ্দিন দেওয়ান, মো: মজিবুর রহমান মেম্বার, প্রফেসর এস এম আক্তারুজ্জামান, আবদুল হক মেম্বার, সোরহাব খান স্বপন, সি এম আনোয়ার হোসেন ও বেলায়েত হোসেন।
গুলশান থানার তালিকায় আছেন আব্দুল আলীম নকী, ফারুক হোসেন ভুঁইয়া, রাবেয়া আলম, মো: মজিবর রহমান, আনোয়ার হোসেন সুজন, ইঞ্জিনিয়ার লতিফ, জাহিদ হোসেন ও মো. দ্বীন ইসলাম। ক্যান্টনমেন্ট থানায় প্রিন্সিপাল লিয়াকত আলী, আব্দুর রশিদ বাবুল, আফজাল হোসেন প্রধান, শ্যামল খান, মো: ইকবাল হোসেন, মো: মিয়াজ উদ্দীন, মো: মহরত আলী, আবুল হোসেন ও নুরুল ইসলাম মৃধা। বাড্ডা থানায় এ জি এম সামসুল হক, মো: আবুল হোসেন, মো: মাহফুজুর রহমান, হাজী মোস্তফা মেম্বার, মাহাবুবুল আলম ভূঁইয়া শাহীন, মো. তাজুল ইসলাম ও আলী হোসেন। ভাটারা থানায় মো: আতাউর রহমান চেয়ারম্যান, মোহাম্মদ আলী, ওয়াহিদুজ্জামান মেম্বার, কাজী হযরত আলী, কাজী নুরুল ইসলাম, মো: জাহাঙ্গীর আলম, মো: অরুণ, মো: আব্দুল আজিজ (মেম্বার), হেলাল ঢালী, মো: সেলিম মিয়া, রেজাউল কবির ও মো: আতাউর রহমান আতা। রামপুরা থানায় ফয়েজ আহমেদ ফরু, আবুল মেসের, মো: হেলাল উদ্দিন হেলু, মো: মমিন উদ্দিন ও মো: সাইদুর রহমান মিহির। মিরপুর থানায় হাজী এস এ খালেক, এম এ সিদ্দিক (সাজু), মুন্সী বজলুল বাসিত আঞ্জু, রবিউল আউয়াল, আবু হোসেন আব্দুল, শামিম পারভেজ, হাজী আবদুল মতিন, হাজী ওয়াজ উদ্দিন, দেলোয়ার হোসেন দুলু, ফজলুল হক, আবুল হোসেন আবুল, আহম্মেদ হোসেন, হেলাল মাতবর, আনোয়ার হোসেন, এ বি এম রাজ্জাক, এ এল এম কাওছার আহম্মেদ। কাফরুল থানায় হাজী রফিকুল ইসলাম, মো: মোজাম্মেল হোসেন মতি, আশরাফুজ্জাহান, আলী আশরাফ মামুন, আক্তার হোসেন জিল্লু, আবু নাসের মোহাম্মদ ওয়াহিদুর রহমান ও এফ এম খালেদ। ভাসানটেক থানায় গোলাম কিবরিয়া মাখন, সৈয়দ ফজলুল করিম, খন্দকার মো: ইব্রাহীম খলিল, আব্দুল আহাদ, মো: জিয়াউর রহমান, লিয়াকত আলী মাতবর, মো: খোকন, মো. বকুল ও আমির হোসেন। পল্লবী থানায় এ কে এম মোয়াজ্জেম হোসেন, মাহফুজ হোসাইন খান সুমন, হাজী সাজ্জাদ হোসেন মোল্লা (কমিশনার), মো: সহিদুর রহমান, আলতাফ মোল্লা, কাজী আলী ইমাম, বুলবুল মল্লিক, আনোয়ার হোসেন, মো: বশির উদ্দিন, আব্দুল্লাহীল বাকী, শেখ শরাফত আলী ও আলমাছ হোসেন। মোহাম্মদপুর থানায় আতিকুর রহমান মতিন, মো: সোহেল রহমান, ওসমান গনি শাহজাহান, মো: কামরুজ্জামান জুয়েল, সোহেল রশিদ, এস এম আহাম্মদ আলী ও হাজী ইউসুফ। আদাবর থানায় মো: আবুল হাশেম, অ্যাডভোকেট আক্তারুজ্জামান, হাজী নাসির উদ্দিন, সাদেক হোসেন স্বাধীন, লুৎফর রহমান, হাজী জয়নাল আবেদিন, মির্জা মানিক, শাহিন মো: শাহান শাহ, খন্দকার ফারুক আহমেদ ও লুৎফর রহমান। ধানমন্ডি থানায় শেখ রবিউল আলম রবি, আবুল খায়ের বাবলু, মো: আকবর হোসেন, রমজান আলী ভূঁইয়া, আবু নাসের চৌধুরী লিটন, এস এম মতিউর রহমান ও জামাল হোসেন টুটুল। তেজগাঁও থানায় জালাল আহমেদ, এল রহমান, মো: জালাল উদ্দিন, মোহাম্মদ আলী, নবী সোলেমান, ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, মো: মোজাহিদুর রহমান ও কুতুব উদ্দিন স্বপন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫