ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৩ নভেম্বর ২০১৭

ক্রিকেট

এবার নিউজিল্যান্ডের সামনে টেস্ট পরীক্ষায় নামছে বাংলাদেশ

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১১ জানুয়ারি ২০১৭,বুধবার, ১৯:০৬


প্রিন্ট

ওয়ানডে ও টুয়েন্টি টুয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশের পর এবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ফরম্যাটে খেলতে নামছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট। ওয়েলিংটনে বাংলাদেশ সময় ভোর চারটায় শুরু হবে ম্যাচটি। প্রথম টেস্টে ভালো করার ইঙ্গিত দিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও নিউজিল্যান্ডের দলপতি কেন উইলিয়ামসন।
ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মিশন শুরু করেছিলো বাংলাদেশ। ছোট ছোট ভুলে সিরিজের তিনটি ম্যাচই হারে তারা। ফলে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা নিয়ে টি-২০ সিরিজে পা রাখে টাইগাররা। কিন্তু সেখানেও, একই চিত্র বাংলাদেশের পারফরমেন্সে। ব্যাট-বল-ফিল্ডিং তিন বিভাগে ব্যর্থ টি-২০ সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ হয় টাইগাররা।
তাই ডাবল হোয়াইওয়াশের স্বাদ নিয়ে টেস্ট ফরম্যাটের পরীক্ষার সামনে বাংলাদেশ। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরের পর আবারো বিদেশের মাটিতে টেস্ট খেলতে নামছে টাইগাররা। ওয়েলিংটনের বেসিন রির্জাভের পেস সহায়ক উইকেটে কঠিন পরীক্ষাই দিতে হবে বাংলাদেশকে। দলের দায়িত্বটা নিতে হবে চার সিনিয়র খেলোয়াড় তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমকে।
সদ্যই হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি থেকে সুস্থ হয়েছেন মুশফিকুর। তবে পুরোপুরি নয়। এমন তথ্য নিজেই জানালেন টাইগার দলপতি, ‘ইনজুরি থেকে আগের চেয়ে অনেকটা সুস্থ। তবে শতভাগ ফিট নই আমি। কিন্তু খেলার জন্য প্রস্তুত।’
নিজের ইনজুরির পাশাপাশি ওয়েলিংটনের পিচ ও বাতাস নিয়েও চিন্তা রয়েছে মুশফিকুরের, ‘এখানকার উইকেট পেসারদের জন্য সহায়ক। পাশাপাশি বাতাসও অনেক সমস্যা করবে আমাদের। বোলিং-ফিল্ডিং করার সময় বেশি সমস্যায় পড়তে হবে।’
অন্যদিকে, নিজেদের কন্ডিশনে খেললেও টেস্ট সিরিজটি চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মানছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন, ‘পরিচিত কন্ডিশন হলেও এখানেও বড় চ্যালেঞ্জ আমাদের সামনে। বাংলাদেশ ভালো দল। নিজেদের কন্ডিশনে সেই প্রমান দিয়েছে তারা। তাই সাফল্য পেতে হলে আমাদের সেরাটাই দিতে হবে।’
এখন পর্যন্ত ছয়টি সিরিজে মোট ১১টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড। পাঁচটি টেস্ট সিরিজের পাশাপাশি ৮টি ম্যাচ জিতেছে কিউইরা। তিনটি ম্যাচ হয়েছে ড্র। এমন পরিসংখ্যান থেকে কোন আত্মবিশ্বাস না পেলেও, দেশের মাটিতে সর্বশেষ টেস্টে ইংল্যান্ডের হারানোর স্মৃতিতে উজ্জীবিত হয়ে উঠতে পারে বাংলাদেশ।
বাংলাদেশ স্কোয়াড : মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), তামিম ইকবাল (সহ-অধিনায়ক), ইমরুল কায়েস, মোমিনুল হক, সাব্বির রহমান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, কামরুল ইসলাম রাব্বি, সৌম্য সরকার, তাসকিন আহমেদ, নুরুল হাসান সোহান ও শুভাশিষ রয়।
নিউজিল্যান্ড স্কোয়াড : কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), বিজে ওয়াটলিং (উইকেটরক্ষক), ট্রেন্ট বোল্ট, ডিন ব্রাউনলি, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, ম্যাট হেনরি, টম লাথাম, হেনরি নিকোলস, জিত রাভাল, মিচেল স্যান্টনার, টিম সাউদি, রস টেলর ও নিল ওয়াগনার।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫