সোনারগাঁওয়ে লোক কারুশিল্প মেলা শুরু ১৪ জানুয়ারি

সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা

আগামী ১৪ জানুয়ারি থেকে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী লোক কারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব। সোনারগাঁওয়ে অবস্থিত বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এ মেলার আয়োজন।

এবারের মেলার আকর্ষণ গ্রামীণ লোকজ সংস্কৃতির অন্যতম মাধ্যম ‘মৃৎশিল্পের প্রাচীন ঐতিহ্য ও আধুনিকতার মেলবন্ধন’ শিরোনামে প্রদর্শনী। প্রদর্শনীতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মৃৎশিল্পের প্রথিতযশা ৮ জন কাঁথাশিল্পী আলোচিত প্রদর্শনীতে অংশ নেবেন।

আজ বুধবার দুপুরে ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এ তথ্য জানান ফাউন্ডেশনের পরিচালক কবি রবীন্দ্র গোপ।

এবারের মেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার উদ্ধোধন করবেন সংষ্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। বিশেষ অতিথি থাকবেন নারায়ণগঞ্জ- ৩ (সোনারগাঁও) আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, সংস্কৃতি সচিব আক্তারী মমতাজ।

মেলা উপলক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন পরিচালক কবি রবীন্দ্র গোপ। এসময় আলোচনা অংশ নেন সাংবাদিক একেএম মাহফুজুর রহমান, অসিত কুমার দাস, আরিফুর রহমান, আল আমিন তুষার, মনিরুজ্জামান মনির, আবু বকর সিদ্দিক, মাহবুবুল ইসলাম সুমন, ফাউন্ডেশনের প্রকৌশলী মো: মোদাচ্ছের হোসেন, প্রদর্শন কর্মকর্তা একে আজাদ সরকার, গাইড লেকচারার একে এম মুজ্জাম্মিল হক মাসুদ, ইয়ামিন খান, নিরাপত্তা কর্মকর্তা সাখওয়াত হোসেন প্রমুখ।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ফাউন্ডেশনের পরিচালক কবি রবীন্দ্র গোপ জানান, বাংলাদেশের লোক ও কারুশিল্পের ঐতিহ্য, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের লুপ্তপ্রায় লোকজ ঐতিহ্যকে পুনরুদ্ধার, সংগ্রহ, সংরক্ষণ, গবেষণা, প্রদর্শন এবং পুনরুজ্জীবন এ মেলার মূল উদ্দেশ্য।

মাসব্যাপী মেলায় এবার দেশের পল্লী অঞ্চল থেকে ৫৪ জন কারুশিল্পী প্রদর্শনীতে অংশ নিচ্ছে। তাদের জন্য ২৭টি স্টলসহ হস্তশিল্প, পোশাক, স্টেশনারি ও কসমেটিক্স ও বিভিন্ন প্রকারের খাবারের স্টল মিলিয়ে মোট ১৯৩টি স্টল থাকছে। এবারের মেলায় বাজেট ধরা হয়েছে ৬৫ লাখ টাকা। গ্রামীন বিভিন্ন খেলার পাশাপাশি বাউল, পালা, জারি, সারিসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের গানের আসর ছাড়াও এবারের মেলায় থাকছে মৃৎশিল্পের বিশেষ প্রদর্শনী। এ বিশেষ প্রদর্শনী আয়োজন উপলক্ষে গবেষনামূলক সেমিনার ও একটি ক্যাটালগ প্রকাশ করবে ফাউন্ডেশন। ঢাকা ও রাজশাহী অঞ্চলের প্রথিতদশা ৮ জন মৃৎ শিল্পী এ প্রদর্শনীতে অংশ নেবেন বলে জানা গেছে।

অন্যান্য বছরের মতো এবছরও মেলা নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। এদিকে মেলা উপলক্ষে মেলা চত্বরে চলছে নানা প্রস্তুতি। ফাউন্ডেশনের পুরো এলাকায় বর্ণাঢ্যভাবে সাজানো হয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.