ঢাকা, বুধবার,২৪ মে ২০১৭

ফুটবল

পুসকাস অ্যাওয়ার্ড জিতলেন ফায়াজ

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১০ জানুয়ারি ২০১৭,মঙ্গলবার, ১৩:২১


প্রিন্ট

অসাধারণ এক ফ্রি-কিকে দূর্দান্ত এক গোলের পুরস্কার দ্রুতই পেয়ে গেছেন মালয়েশিয়ান সুপার লীগের দল পেনাংয়ের মিডফিল্ডার মোহাম্মদ ফায়াজ সুবরি। ইউরোপীয়ান, ইংলিশ ফুটবলারদের ভিড়ে ফিফা বর্ষসেরা গোলের পুরস্কার পুসকাস অ্যাওয়ার্ড ঘরে আসায় ফুটবল পাগল মালয়েশিয়ান সমর্থকরা দারুণ উচ্ছসিত। কোন এশিয়ান ফুটবলার হিসেবে এই প্রথম সুবরি পুসকাস এ্যাওয়ার্ড জেতার কৃতিত্ব দেখালেন। মালেশিয়ান প্রধান মন্ত্রী নাজিব রাজাক তাকে অভিনন্দন জানিয়ে বার্তা দিয়েছেন।

ফেব্রুয়ারিতে পেনাংয়ের হয়ে চোখ ধাঁধানো ওই গোলটি করে সুবরি ফিফার ওয়েবসাইটে ৬০ শতাংশ ভোট পেয়ে পুসকাস অ্যাওয়ার্ড জিতে নিয়েছেন। সুবরির এই গোলটিকে অনেকেই ১৯৯৭ সালের ফ্রান্সের বিপক্ষে ব্রাজিলিয়ান তারকা রবার্তো কার্লোসের থান্ডারবোল্ট ফ্রি-কিকের সাথে তুলনা করেছেন। গতকাল জুরিখে জাকজকমপূর্ণ অনুষ্ঠানে ফিফা বর্ষসেরা এই গোলের পুরস্কার সুবরির হাতে তুলে দেয়া হয়। এই সময় তিনি পুরস্কারের ট্রফি হাতে নিয়ে কোচ, সতীর্থ ও পরিবারকে ধন্যবাদ জানান।

এ সময় তিনি বলেন, ‘সত্যিই আমি কখনই এটা চিন্তা করিনি। বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ফুটবলারদের পাশে দাঁড়িয়ে এই ধরনের একটি পুরস্কার গ্রহণ করতে পারবো- তা কল্পনাতেও ছিল না।’

এরপর পরই নিজের ইনস্টাগ্রাম এ্যাকাউন্টে সুবরি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড লিজেন্ড এ্যালেক্স ফার্গুসন ও রিয়াল মাদ্রিদ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর সাথে ছবি পোস্ট করেছেন। মালয়েশিয়ান সমর্থকরা টুইটারে সুবরিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

২৯ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডারের অসাধারণ ওই গোলটির ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গত বছর ভাইরাল হিসেবে ছড়িয়ে পড়েছিল। হাজারো গোলের ভিড়ে শেষ পর্যন্ত তার গোলকেই পুসকাস অ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত করা হয়। দশটি থেকে গত মাসে সুবরির সাথে ব্রাজিলের মারলোন ও ভেনিজুয়েলার নারী ফুটবলার স্টিফেনি রোচের গোলকে সংক্ষিপ্ত তালিকায় স্থান দেয়া হয়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫