ঢাকা, সোমবার,২৪ এপ্রিল ২০১৭

ফ্যাশন

পা র্টি সা জ

জারীন তাসনিম

০৯ জানুয়ারি ২০১৭,সোমবার, ১৯:২৮


প্রিন্ট

বছর শেষের এই সময়ে নানা অনুষ্ঠান, পার্টি, উৎসব চলতেই থাকে। শীতকাল সাজের জন্য উপযুক্ত একটা সময়। শীতের কারণে যেমন মেকআপ গলে যাওয়ার ভয় থাকে না, তেমনি সাজাও যায় ইচ্ছেমতো। যেকোনো জমকালো সাজ চমৎকার মানিয়ে যায়। ফেস্টিভ সিজনে গ্লামারাস লুক আনতে তাই সাজসজ্জার বিষয়টি জেনে নিতে হবে। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে কেমন হবে আপনার সাজসজ্জা সে বিষয়ে জানাচ্ছেন নার্ভিনস বিউটি স্যালনের রূপ বিশেষজ্ঞ আমিন হক।

বেজ মেকআপ
যেকোনো অনুষ্ঠানে বেস মেকআপটা হতে হবে ঠিকঠাক। শুরু করুন ত্বক পরিষ্কার করার মধ্য দিয়ে। ক্লিনজিং মিল্ক দিয়ে মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। এবার গোলাপজলে কটন প্যাড ডুবিয়ে একবার মুখে, গলায় ও ঘাড়ে লাগিয়ে নিন। কয়েক মিনিট পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করতে প্রাইমার লাগিয়ে নিন। এবার স্কিন টোনের সাথে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন লাগান। ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে ভালোভাবে মুখ, কান, গলা, ঘাড়ে ব্লেন্ড করে নিন। যাদের ত্বক শুষ্ক তারা ফাউন্ডেশনের সাথে কয়েক ফোঁটা স্কিন অয়েল ব্যবহার করতে পারে। মুখের কোনো দাগ আড়াল করতে চাইলে সামান্য কনসিলার স্পটে লাগিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। মুখে গ্লো আনতে চাইলে কনসিলার নিয়ে চোখের নিচে, নাকের ওপর, কপালের মাঝখানে এবং থুঁতনিতে লাগান এবং ব্লেন্ড করুন। এবার লুজ পাউডার বা কমপ্যাক্ট নিয়ে চেপে চেপে সারা মুখে বুলিয়ে নিন। এক শেড বা দুই শেড গাঢ় কনসিলার ব্যবহার করে চিকবোনের ঠিক নিচের অংশ, চোয়াল ও কপালের বাইরের দিকে লাগিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। যদি নাক শাপ্ট দেখাতে চান তাহলে নাকের দুই পাশে সামান্য গাঢ় শেডের কনসিলার লাগিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। হয়ে গেল বেজ মেকআপ।
এবার পোশাকের রঙের সাথে সামঞ্জস্য রেখে পিঙ্ক বা ব্রাউন কালারের ব্লাশন লাগিয়ে নিন গালের চিকবোন বরাবর। যাদের মুখ গোলাকৃতির, তারা কান বরাবর ব্লাশন টেনে দেবেন। এ ছাড়া কপাল, থুঁতনি ও চোয়ালের নিচেও ব্লাশন লাগিয়ে নেবেন।

চোখের সাজ
পার্টি মেকআপের চোখের সাজ খুব গুরুত্বপূর্ণ। তাই যতœ নিয়ে চোখের মেকআপ করতে হবে। প্রথমে আইব্রো ঠিকঠাক শেপে এঁকে নিন আই পেনসিল দিয়ে। খুব ডার্ক শেডের পেনসিল ব্যবহার করবেন না। তবে খুব বেশি করতে যাবেন না। ন্যাচারাল ব্রুর শেপটাই একটু নিখুঁত করুন। ফাঁকা বা কম ঘন অংশগুলো ফিলআপ করে নিন। প্রথমে কোনো ম্যাট ব্রাউন শেড নিয়ে চোখের ওপরে লাগান। ব্লেন্ড করতে ভুলবেন না। পার্টিতে শিমার বা ব্রোঞ্জ কালারের শ্যাডো দেখতে বেশ ভালো লাগে। পোশাকের সাথে মিলিয়ে শ্যাডো লাগাবেন না। বরং কনট্রাস্ট করার চেষ্টা করুন। গোল্ডেন, সিলভার, কপার, রোজ, অলিভ, পার্পেল এ ধরনের যেকোনো রঙের শিমার ব্যবহার করতে পারেন। চোখের পাতার ওপর লাগিয়ে নিন। চোখের বাইরের কোনো একটু গাঢ় শেডের শ্যাডো লাগান। আইব্রোর ঠিক নিচে কোনো হালকা শিমার শেড লাগান। প্রতিটি কালার ব্লেন্ড করে নিন। বাইরের কোণে যে গাঢ় শেড ব্যবহার করেছেন, সেটাই নিচের পাতার বাইরে কোণে ব্যবহার করুন। নিচের পাতার ভেতরের কোণে হালকা রঙের শিমার শেড লাগান, উজ্জ্বল দেখাবে। এবার চোখের শেপ অনুযায়ী সরু বা মোটা করে লাইনার টানুন। লাইনার কালোর বদলে অন্য রঙেরও লাগাতে পারেন। এবার ঘন করে মাশকারা দিয়ে দিন। ইচ্ছে হলে ফলস আইল্যাশ ব্যবহার করতে পারেন।

ঠোঁটের সাজ
পার্টি সাজে গাঢ় শেড বেশ ভালো লাগে। মেরুন, মভ, চকলেট, লাল, ম্যাজেন্টা, কমলা ইত্যাদি শেড ব্যবহার করতে পারেন। যারা হালকা লিপস্টিক লাগাতে চান তারা ফুশিয়া, পিঙ্ক, বেবিপিঙ্ক, কোরাল ইত্যাদি রঙ ব্যবহার করতে পারেন। তবে চোখ ও ঠোঁট দুটো একসাথে লাউড করবেন না।
এবার ব্রাশে সামান্য হাইলাইটার নিয়ে আইব্রোর নিচে, চিকবোন, নাকের ডগা ও থুঁতনিতে লাগান। হাতের কাছে হাইলাইটার না থাকলে কোনো গোল্ডেন বা সিলভার আইশ্যাডোও লাগাতে পারেন।

চুলের সাজ
চুলের সাজে নানা ধরনের স্টাইল করতে পারেন। সামনে পাফ করে বান বা ফ্রেঞ্চ রোল করতে পারেন অথবা ব্লো ড্রাই করে চুল খোলাও রাখতে পারেন। আজকাল বিভিন্ন হেয়ার অ্যাকসেসরিজ পাওয়া যায়, এগুলো ব্যবহার করুন।
এবার পোশাকের সাথে ম্যাচ করে জুয়েলারি ব্যাগ ও জুতা পরে নিলেই পূর্ণ হবে আপনার পার্টিসাজ।

ছবি : পারসোনা বিউটি স্যালনের সৌজন্যে

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫