ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২০ জুলাই ২০১৭

অবকাশ

ছাদে বাগান

অবকাশ ডেস্ক

০৮ জানুয়ারি ২০১৭,রবিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

ছাদে বাগান হলো মানবসৃষ্ট সবুজ আচ্ছাদন যা টবে, ড্রামে, রোপণকৃত গাছ যেকোনো আবাসিক, বাণিজ্যিক বা কলকারখানার ছাদে করা হয়ে থাকে। ছাদে বাগান কার্যক্রমের আওতায় নগরের পরিবেশগত বর্তমান সমস্যা অনেকাংশেই দূর করা সম্ভব, পাশাপাশি বাড়তি খাদ্য পুষ্টি ও অর্থ আসে।
বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নগরীর তাপমাত্রা কমানোর জন্য কৃত্রিম উদ্যান স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারও এ ব্যাপারে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর এ ব্যাপারে কাজ করে যাচ্ছে। ছাদে ফুল-ফল, শাকসবজি, মসলা প্রভৃতি উদ্যান ফসল চাষাবাদের পাশাপাশি সুশীতল ছায়া, পশুপাখির আশ্রয় স্থান নিশ্চিত করা হয়। অন্যভাবে পাকা বাড়ির খালি ছাদে অথবা ব্যালকনিতে বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে বিভিন্ন উদ্যান ফসল বিশেষ করে ফুল, ফল, শাকসবজির বাগান গড়ে তোলাকে ছাদবাগান বলা হয়।
ছাদে বাগানের ফলে তাজা শাকসবজি ও ফল-ফুল পাওয়া যায়, বাড়তি আয়, কর্মসংস্থান ও অবসর সময় কাটানো যায়। সবুজ চত্বর ও বাগান বিনোদন দিতে পারে। পরিবেশ দূষণমুক্ত রাখে, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে সহায়তা করে, অবকাঠামো তৈরিতে যে পরিমাণ চাষের জমি নষ্ট হয় ছাদে বাগানের মাধ্যমে তার কিছুটা পুষিয়ে নেয়া যায়। গ্রিন হাউজ প্রতিক্রিয়ার কবল থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। পরিবেশ সুশীতল ও শান্তিময় থাকে। সর্বোপরি বাড়ির শিশুরা বিষমুক্ত ফল ও শাকসবজি খেতে পারে।
দনিয়া ইউনিয়নের পলাশপুরের মণিমালা ১৪৭৫ স্কয়ার ফুটের বাড়ির ছাদে একটি শখের বাগান গড়ে তোলেন। ১৯৯৫ সালে তার ছোট ভাইয়ের দেয়া রজনীগন্ধার চারা দিয়ে তার বাগানের শুরু। এখন তাদের বাড়িটা ছয়তলা এবং পরিবারের সবার সহযোগিতায় তিনি সুন্দর একটি বাগান গড়ে তুলেছেন।
বাগানে বিভিন্ন ধরনের গাছ আছে ফলের মধ্যেÑ পেয়ারা, ডালিম, বেদানা, সফেদা, মাল্টা, কাগজি লেবু, করমচা, পেঁপে, কুল, কামরাঙা, বারো মাসি আম, আতা, ফুলের মধ্যে কনকচাঁপা, নয়নতারা, হাসনাহেনা, টগর, জবা, গোলাপ। শাকসবজির মধ্যে পুঁইশাক, লালশাক, শিম, ধুন্দল, বরবটি, বেগুন, লাউ, ঝিঙা, মানকচু, দুধকচু, পেস্তা, আলু, চুঁই গাছ, টমেটো, সাজনা, আমরুল শাক, কাঁচা মরিচ, কাঁচা হলুদ, আদা, তেজপাতা, থানকুনি পাতা, ঔষধি গাছের মধ্যে নীম ও তুলসী।
তার স্বামী অজয় কুমার খাঁ, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিজিএম, তিনি এবং তার ছেলেমেয়েরা বাগানের কাজে তাকে সাহায্য করেন। মণিমালা নিজের হাতে বাগানের পরিচর্যা করেন এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর থেকে তিনি ছাদে বাগানের ট্রেনিং এবং পরামর্শ পেয়ে থাকেন। তিনি মনে করেন বাগান পরিচর্যা করার মধ্যে যে আনন্দ তা অন্য কিছুুতে পান না। সবার উদ্দেশ্যে তার পরামর্শ-প্রত্যেক বাড়িওয়ালা যার যতটুকু ছাদে জায়গা আছে সেটুকু সুন্দর একটি সবুজ বাগান করে ফুলে ও ফলে ভরিয়ে রাখুন, ঢাকা শহরের প্রত্যেকটা বাড়ির ছাদ যেন সবুজে ভরে যায় এটিই তার প্রত্যাশা।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫