ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

দিগন্ত সাহিত্য

বিশ্বসাহিত্যের টুকিটাকি

ম তি ন মা হ মু দ

০৬ জানুয়ারি ২০১৭,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট

জে কে রাউলিং আরো দু’টি বই লিখছেন
হ্যারি পটার সিরিজ লিখে বিশ্ব সাহিত্যাঙ্গনে আলোড়ন সৃষ্টিকারী লেখিকা জে কে রাউলিং আবার খবরের শিরোনাম হয়েছেন। হ্যারি পটার সিরিজ আর লিখবেন না আগেই ঘোষণা দিয়েছেন তিনি, আর এটা সবার জানা। এর বাইরে বড়দের জন্যও লিখেছেন রাউলিং। সম্প্রতি তিনি টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, আরো দু’টি বই তিনি লিখছেন। এই খবরে তার ভক্ত পাঠকরা যারপরনাই খুশি। খুশি প্রকাশকেরাও। তার এই ঘোষণাকে তার ভক্তদের জন্য খ্রিষ্টীয় বড়দিনের শুভেচ্ছা হিসেবে দেখা হচ্ছে। রাউলিং টুইটারে লিখেছেন, তিনি দুটো উপন্যাস নিয়ে কাজ করছেন। এ বিষয়ে ভক্তরা নানা প্রশ্ন করছেন তাকে। এটি নতুন উপন্যাস হবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি লিখেছেন, আমি সত্যিই এ ব্যাপারে কাজ করছি। আর বিস্তারিত কিছু তিনি জানাননি। তবে এটুকু জানা গেছে, নতুন দু’টি উপন্যাসের একটি তার নিজের নামে এবং অপরটি রবার্ট গলব্রেইথের নামে লিখবেন। বিষয়বস্তুর ব্যাপারে তার ভক্তরা যতই জানতে চাক না কেন, এ ব্যাপারে তিনি একেবারে চুপ। রবার্ট গলব্রেইথ জে কে রাউলিংয়েরই একটি ছদ্ম নাম। এ নামে তিনি আগেও কয়েকটি বই লিখেছেন।

কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বই মেলা
মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হয় কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বই মেলা। মালয়েশিয়ার শিক্ষা মন্ত্রণালয় -এর মূল আয়োজক। তবে মালয়েশিয়ার পুস্তক শিল্পের সাথে জড়িত ছয়টি সমিতির মাধ্যমে ন্যাশনাল বুক কাউন্সিল অব মালয়েশিয়া মেলার সামগ্রিক পরিচালনায় থাকে। এ বছর হয়ে গেল ৩৪তম বই মেলা। তবে ২০১৩ সাল থেকে এই মেলা ব্যাপকভাবে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। সে বছর থেকে এই মেলা প্রতি বছর ২০ লাখ দর্শক আকর্ষণ করে আসছে ্। দেশী-বিদেশী প্রকাশক, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলো এতে অংশ নেয়। মালয়েশিয়ায় ইংরেজি ভাষার বই ও স্থানীয় বাহাসা মালয়েশিয়ান বই বেশ জনপ্রিয়। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত এই বই মেলায় ব্রুনেই, সিরিয়া, সৌদি আরব, কুয়েত, মিসর, ইন্দোনেশিয়া, ভারত, সিঙ্গাপুর, ইরান, লেবানন ও যুক্তরাজ্য অংশ নেয়। এ বছরের মেলায় ছিল ৮০০ স্টল ও বুথ। আর দর্শক ছিল ২৫ লাখ। এই দর্শক আগমনে আয়োজকরা উৎফুল্ল।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫