ঢাকা, মঙ্গলবার,১২ ডিসেম্বর ২০১৭

দিগন্ত সাহিত্য

শীত

জা হি দু ল হ ক

০৬ জানুয়ারি ২০১৭,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট

শীত, তুমি শাদা নির্জন পরী
ডিসেম্বরের কার্নিশে বসে থাকো,
তুমি একঝাঁক কুয়াশার পাখি
দুঃখের ঘরে শহরে ঝাঁপিয়ে পড়ো।
মানুষ তখন কী করে? জানি না।
আমি যাকে চিনি তার বুকে হাহাকার;
নিঃস্ব খিন্ন অচেনা শহরে
প্রতিটি বাড়িকে মনে হয় মৃত্যুরথ

মৃতদের পুরী; ঠাণ্ডা, শীতল।
কবর কি তবে মানুষের চিরবাড়ি
দরোজাবিহীন? শহরের খোপে খোপে
সে দেখে কেবলই এইসব কুয়াশাকে।
আমি প্রাণপণে, ‘ও মানুষ, শোনো,
দেখো, এ শহর এখনো মুখর হয়
গাঢ় কুয়াশা ও হিম সত্ত্বেও,
আগুনের আঁচে মানুষেরা সেঁকে বুক’

বলতেই, তুমি সন্ধ্যার ছাদে
ডানা ভেঙে নামো, শীত, তুমি পরী, পরীÑ
তুমি নির্জন বিধুর গন্ধ
বুকের ভেতরে শিরশির করে ওঠো।

স্থিত হও সখা, তুমি তো অচেনা,
সেই দূরতর শহরের কোনো গান;
শীত, তুমি শাদা নির্জন পরী
তুমি একঝাঁক কুয়াশার শাদা পাখি।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫