ঢাকা, বুধবার,১৮ জানুয়ারি ২০১৭

পাঠক গ্যালারি

স্টেজের সেই মেয়েটি

ফাতেমা মাহফুজ

০৪ জানুয়ারি ২০১৭,বুধবার, ১৯:৪৬


প্রিন্ট

ডিসেম্বর মাস বলতে গেলে উৎসবের মাস। ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের আমেজ শেষ না হতেই খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের বড়দিন, সেই সাথে চলতি বছরের বিদায়। তাই বিভিন্ন আনন্দ-উৎসব চলতেই থাকে। আবার এলাকায় এলাকায় বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে রাস্তা বন্ধ করে গভীর রাত পর্যন্ত চলে কনসার্ট। যে কনসার্টে এলাকাভিত্তিক তথা স্থানীয় ব্যান্ড শিল্পীদের ডাকা হয়। যারা প্রথমে সুপরিচিত হেভি মিউজিকের বাংলা গান দিয়ে শুরু করে, এরপর শুরু হয় হিন্দি গান। ব্যান্ড শিল্পীদের মধ্যে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরাও থাকে। যারা গভীর রাত পর্যন্ত স্টেজে গান গায়।

এ দিকে শ্রোতার সারিতে ছেলেদের ভিড়। ছেলেরা মূলত গান শুনতে নয়, বরং মিউজিকের সাথে দুলতে থাকা স্টেজের সেই গায়িকা মেয়েটিকে দেখতে আসে। পরে অনেক ছেলেই উত্তেজিত হয়ে বিশ্রী মন্তব্য ছুড়ে দেয় মেয়েটির উদ্দেশে। তবে অবাক কাণ্ড হলো- এসব মন্তব্য শুনে ওই মেয়েরা আরো মজা পায়। প্রশ্ন হলো কেন?

প্রথম কারণ, আমরা অনেকেই সম্মান করতে জানি না। ফলে, আমাদের সুশিক্ষার অভাবে অন্যেরা যেমন বিশ্রী মজা করে, তেমনি আমাদের অবুঝ মন বোকার মতো সেটাতেই আনন্দ অনুভব করে।

দ্বিতীয়ত, টাকা উপার্জনের নেশায় অনেক সময় আমরা নৈতিকতা ও নিজস্ব নিরাপত্তার কথাও ভুলে যাই।

তৃতীয়ত, মূলত যেটাকে প্রধান কারণ বলা যায় তা হলো- পারিবারিক অনুশাসনের অভাব ও নষ্ট বন্ধুর খপ্পরে অনেক ছেলে-মেয়ে বিপথগামী হয়। আমি এমনও মা-বাবাকে চিনি, যারা স্থানীয় ব্যান্ডে ঢুকে রাত জেগে (বলা যাচ্ছে না রাতভর কী পান করেছে!) ঘরে ফেরা ছেলেকে নিয়ে গর্ব করে, তার গলার প্রশংসা করে। ভালো গানের গলার প্রশংসা করা এক কথা, আর ছেলের রাত জেগে ক্লান্ত হয়ে ঘরে ফেরাকে তুচ্ছভাবে নেয়া ভিন্ন কথা। কারণ, গভীর রাতে বাড়ি ফেরা ভালো পরিবারের ভালো ছেলে-মেয়েদের লক্ষণ নয়। অথচ আমাদের পরিবারই তাদের সন্তানদের দিন দিন বিপথে ঠেলে দিচ্ছে।
এ ক্ষেত্রে অনেকে অযৌক্তিকভাবে নারী স্বাধীনতার প্রসঙ্গ তুলে বলতে পারেন- স্টেজের সেই মেয়েটি সন্তুষ্ট থাকলে আপনার সমস্যা কী?

মূলত স্বাধীনতা মানে স্বেচ্ছাচারিতা নয়। তা ছাড়া এত রাতে এত ছেলেদের মাঝে সেই মেয়েটি কি নিরাপদ? তাই নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে অন্যকে সতর্ক করা মানবিক দায়িত্ব মনে করি।
তেমনি সামাজিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির আগেই রাষ্ট্রের দায়িত্ব জনগণকে সতর্ক করার পাশাপাশি কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া। তাই এভাবে রাত জেগে রাস্তায় কনসার্টের অনুমতি না দেয়াই শ্রেয়। সেই সাথে পরিবারের দায়িত্ব সন্তানকে সঠিক পথের নির্দেশনা দেয়া, যাতে সন্তান কখনো নিজের সম্মানকে বিক্রি না করে, সেই সাথে পরিবেশও যাতে নষ্ট না হয়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন
চেয়ারম্যান, এমসি ও প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : শিব্বির মাহমুদ

১৬৭/২-ই, ইনার সার্কুলার রোড, ইডেন কমপ্লেক্স, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ৭১৯১০১৭-৯, ৭১৯৩৩৮৩-৪

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫